মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২২.৮ °C
 
২৪ এপ্রিল ২০১৭, ১১ বৈশাখ ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

দেশের জন্য জীবন উৎসর্গ

প্রকাশিত : ২০ এপ্রিল ২০১৭
  • মোঃ রাজিব হোসেন

প্রবাদে আছে-ব্যবহারে বংশের পরিচয়, অল্প বিদ্যা ভয়ঙ্কর। অর্থাৎ যার যে শিক্ষা, তিনি তো সে অনুযায়ীই কথা বলবেন- এটাই তো স্বাভাবিক। যারা দেশের টাকা বিদেশে পাচার করে, যারা দুর্নীতিতে বিশে^র বুকে দেশটাকে পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন করেছে- তাদের মুখে আবার দেশ বিক্রির কথা! তারা দেশ কি তা জানে? যার পরিবার দেশের জন্য জীবন উৎসর্গ করেছে- সেই তো বুঝবে দেশের মর্মব্যথা। শুধু- দেশ আমার; দেশ আমার করলেই দেশের প্রতি ভালবাসা দেখানো হয় না। দেশের উন্নয়নে বা মঙ্গলের জন্য কিছুই করলাম না, অথচ দেশ আমার বলে চিৎকার করলাম- এটা এক হাস্যকর ব্যাপার মাত্র। ঠিক তেমনি হয়েছে বিরোধীদলীয় নেত্রীর বেলায়ও। যারা স্বাধীনতার শত্রু রাজাকারদের ফাঁসিতে একটুও অনুশোচনা প্রকাশ করে না, দেশ স্বাধীনের ৪৬ বছর পর এখনও স্বাধীনতা বিরোধীদের ছাড়তে পারল না- তাদের কাছে আবার দেশ!

পদ্মা সেতুতে দুর্নীতি হয়নি। কিন্তু সেখানেও একটি বিশেষ মহল অপপ্রচার চালিয়ে বিশ^ব্যাংকের অর্থায়ন বন্ধ করেছিল। পরিশেষে ঠিকই তো সত্যের জয় হয়েছে। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ যখন বিশে^র উন্নত দেশের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যেতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ, ঠিক তখনই বিরোধীদলীয় নেতারা হিংসায় বুক জ¦লে সরকার পতনের জন্য মিথ্যা অপপ্রচারে লিপ্ত থাকছে- যা তারা অতীতেও করেছে, বর্তমানেও করছে। পৃথিবীর ইতিহাসে কোথাও দেশ বিক্রির কথা আছে কি-না তা আমার জানা নেই! গুলশান কার্যালয়ে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর সম্পর্কে মন্তব্য করে বলেছেন, পাঁচ বছর কাগজ-কলমে দেশটা ভারতের কাছে বিক্রি করে আওয়ামী লীগ বিদায় নেবে।’ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা যেখানে মহান মুক্তিযুদ্ধের প্রধান সহায়তাকারী দেশের সঙ্গে দু’দেশের কল্যাণের বিষয়টি বিবেচনা করে চুক্তি করতে যাচ্ছে, সেখানে না জেনে ও না বুঝে এ ধরনের মিথ্যাচার কি একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রীর মুখে শোভা পায়! চুক্তি আর সমঝোতা এক জিনিস নয়। চুক্তি হলো বাধ্যবাধকতা, যা দুটি দেশকে আইনগত দিক দিয়ে মানতেই হবে। আর সমঝোতা হলো এমন যে, দুটি দেশের যে কোন একটি দেশ না মানলে সেই সমঝোতাটি কার্যকরী হয় না। আওয়ামী লীগের ইতিহাস শুরু সেই ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ শাসনামল অবসানের পর থেকে। আর বিএনপির জন্ম ও সূচনা হয়েছিল মহান মুক্তিযুদ্ধের কা-ারী ও স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধুর সপরিবারকে নৃশংসভাবে হত্যা ও সামরিক সেনাশাসক জিয়াউর রহমানের ক্ষমতা দখলের মধ্য দিয়ে। যে দলের সূচনা ও জন্ম হয় যেভাবে, সে দলের কাছে দেশ বিক্রির মিথ্যা অপপ্রচার ছাড়া আর বেশি কিই-বা আশা করবে দেশবাসী!

আলাদাতপুর

নড়াইল থেকে

প্রকাশিত : ২০ এপ্রিল ২০১৭

২০/০৪/২০১৭ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: