২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

চট্টগ্রামে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে দুটি বাড়িতে অভিযান


চট্টগ্রামে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে দুটি বাড়িতে অভিযান

জনকণ্ঠ রিপোর্ট ॥ চট্টগ্রামের আকবর শাহ থানা এলাকায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে দুটি বাড়িতে দুই ঘন্টারও বেশি সময় তল্লাশি চালিয়েছে পুলিশ। নিয়মিত তল্লাশির অংশ হিসেবে ওই দুটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে কিছু পাওয়া যায়নি বলে পুলিশ জানিয়েছে। আজ সোমবার সন্ধ্যা ছয়টায় অভিযান শেষ করে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে আজ সোমবার বিকেল পৌনে চারটার দিকে আকবর শাহ থানা এলাকায় কর্নেল হাট সিডিএ আবাসিক এলাকার ১ নম্বর সড়কের চারতলা ভবন ঘিরে অভিযান শুরু করে পুলিশ। এর তিন কিলোমিটার দূরে ঈশান মহাজন লেনের একটি চারতলা বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ। সন্ধ্যা ছয়টার দিকে অভিযান শেষ হয়।

নগর পুলিশের উপকমিশনার (পশ্চিম) ফারুক উল হক সাংবাদিকদের জানান, কিছু তথ্যর ভিত্তিতে নিয়মিত তল্লাশির অংশ হিসেবে ওই দুটি বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে কিছু পাওয়া যায়নি।

সূত্রমতে, সীতাকুণ্ডের নামারবাজার এলাকার সাধনকুটির নামে বাড়ির জঙ্গি আস্তানা থেকে আটক দুই জঙ্গির মধ্যে মহিলা জঙ্গি পুলিশকে জিজ্ঞাসাবাদে বলেন, আকবর শাহ থানা এলাকায় তাদের আরও সঙ্গীরা অবস্থান করছেন। এই তথ্যের ভিত্তিতে এই তল্লাশি চালায় পুলিশ।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (পশ্চিম) নাজমুল হাসান বলেন, এখানে দুটি জঙ্গি আস্তানা আছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে আমরা অভিযান চালাতে এসেছি।আমরা তল্লাশি চালিয়েছি। তবে এরকম কিছু পাওয়া যায়নি।

তবে জঙ্গিবিরোধী ব্লক রেইডের অংশ হিসেবে গোপন তথ্যের ভিত্তিতে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

‌উল্লেখ্য, এর আগে বুধবার দুপুরে সীতাকুণ্ড পৌরসভার আমিরাবাদের সাধন কুটির থেকে এক নারীসহ দুই জঙ্গিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে প্রেমতলা এলাকার ছায়ানীড় ভবনের জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালায় পুলিশ। বুধবার বিকেল তিনটা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ছায়ানীড় ভবনে ‘অপারেশন অ্যাসল্ট-১৬’ চালায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ২০ ঘণ্টার এ অভিযানে ২০ জন জিম্মিকে উদ্ধার করা হয়। এছাড়া চার জঙ্গিসহ পাঁচজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। অভিযানে দুই পুলিশ সদস্য আহত হন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: