২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

এক যুবকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম


এক যুবকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম

নিজস্ব সংবাদদাতা, আমতলী (বরগুনা)॥ বরগুনার আমতলী উপজেলার মধ্য তারিকাটা কালভার্ট থেকে সাফায়াত উল্লাহ (২৬) নামের এক যুবককে থ্রি হুইলারের শ্রমিকরা ধরে তুলে এনে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙ্গে ও মুখ মন্ডল থেতলে দিয়েছে। ঘটনা ঘটেছে শুক্রবার দুপুরে। আহত যুবককে সংকটজনক অবস্থায় উদ্ধার করে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, শুক্রবার দুপুর ২ টার দিকে কলাপাড়া উপজেলার চাকামুইয়া গ্রামের শানু গাজীর ছেলে সাফায়াত উল্লাহ আমতলীর মধ্য তারিকাটা গ্রামের নানা বাড়ী মোসলেম হাওলাদার বাড়ী যাচ্ছিল। পথিমধ্যে মধ্য তারিকাটা কালভার্টের কাছে পৌছলে দুটি থ্রিহুইলার গাড়ীতে করে ১৯/২০ জন শ্রমিকরা এসে তাকে তুলে নিয়ে যায়। পরে দক্ষিণ-পশ্চিম আমতলী সড়কের পাশে নামিয়ে তাকে (সাফায়াত উল্লাহ) থ্রিহুইলার ভাংচুরের অভিযোগ এনে হাতুড়ি, লোহার রড দিয়ে নির্দয়ভাবে পিটিয়ে হাত-পা ও মুখমন্ডল থেতলে কলা গাছের বাগানে ফেলে রেখে যায়। স্থানীয় লোকজন রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে আমতলী হাসপাতালে নিয়ে আসে। তার অবস্থা সংকটজনক হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করেন।

সাফায়াত উল্লাহ’র ভাই মিরন জানান ওসমান মৃধা, কাওসার, মিলন, কবির ও কডা বারেকসহ ১৯/২০ জন শ্রমিকরা থ্রিহুইলার ভাঙ্গার অভিযোগ এনে নির্দয়ভাবে আমার ভাইকে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙ্গে দিয়েছে।

আমতলী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার গৌরাঙ্গ হাজরা জানান গুরুতর আহত সাফায়াত উল্লাহ’র ডান পা, বাম পা, বাম বাহু পিটিয়ে ভেঙ্গে এবং মুখমন্ডল থেতলে দিয়েছে। তাকে সংকটজনক বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বরগুনা জেলা যান্ত্রিক যান থ্রিহুইলার সমিতির সভাপতি মো. জহিরুল ইসলাম খোকন মৃধা জানান এ ধরনে ঘটনার সাথে আমার কোন শ্রমিক জড়িত না। আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা শহিদ উল্লাহ জানান আহত সাফায়াত উল্লাহকে হাসপাতালে গিয়ে দেখেছি। এখনো মামলা হয়নি। মামলা হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ গত ১৩ ফেব্রুয়ারী আমতলী বাধঘাট চৌরাস্তায় বাস ও থ্রিহুইলার শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এর জের ধরে থ্রিহুইলার শ্রমিকদের দাবী বিভিন্ন সড়কে তাদের ১৪ টি থ্রিহুইলার গাড়ী ভাংচুর করা হয়েছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: