১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

হাঁটার পরিবেশ কোথায়


আমাদের রাজধানী ঢাকা শহরের রাস্তার পাশ দিয়ে হাঁটা চলা করা খুব কঠিন। হাঁটতে গেলে নানা প্রশ্ন মনে ভিড় করে আসে। ঢাকার প্রগতিস্বরনীর রাস্তার পাশগুলোতে রয়েছে জমজমাট গাড়ীর ব্যবসা। ফুটপাতের ওপরেই গাড়ী পার্কিং করা থাকে। রাখা থাকে গাড়ীর টায়ার, টিউব, বাম্পার ইত্যাদি। যারা গাড়ী ব্যবহার করেন তারা পয়সাওয়ালা মানুষ। যারা গাড়ীর ব্যবসা, গাড়ীর যন্ত্রাংশের ব্যবসা করেন তারাও পয়সাওয়ালা। এরা উভয়েই সাধারণ মানুষকে ফুটপাত দিয়ে হাঁটতে দিচ্ছেন না। শুধু যে পয়সাওয়ালারাই ফুটপাত দখল করে রেখেছে, সেটাও নয়। গরীব মানুষেরাও রাস্তার ওপরে ফুটপাতে ক্ষুদ্র ব্যবসা করছে। তাতে যাতায়াতে বড় সমস্যা হচ্ছে। এসবের দিকে সরকারের বিশেষ নজর দেয়া উচিত। সরকার রাষ্ট্র পরিচালনা করে। সরকারের দায়িত্ব গরীব মানুষের জন্য ফুটপাতের কাছে কোথাও কোথাও বিশেষ জায়গা তৈরি করে দিয়ে ক্ষুদ্র ব্যবসার সুযোগ করে দেয়া।

গুলিস্তান, পল্টন, ফার্মগেট এলাকার রাজপথগুলোর যেন পুরোটাই হকারদের দখলে। নিউ ইস্কাটন রোডের দুই পাশেও প্রচুর ক্ষুদ্র দোকান। রয়েছে গাড়ীর যন্ত্রাংশের মার্কেট। বহু গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান সেখানে। কিন্তু সেখানে রাস্তার ফুটপাতে সহজভাবে হাঁটা যায় না। বর্তমান ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের দুই মেয়র এই সমস্যাগুলোর দিকে কিছুটা হলেও নজর দিয়েছেন। এটা একটি ইতিবাচক দিক। বিশেষ করে ঢাকা উত্তরের মেয়র অনেকগুলো ফুটপাত পরিষ্কার করার উদ্যোগ নিয়েছেন। সেখান দিয়ে লোকজন হাঁটতে পারছেন। এখানেই থেমে থাকলে চলবে না। সমস্ত রাজপথ পরিষ্কার পরিছন্ন করতে হবে। লোকজনকে হাঁটতে দিতে হবে। এটা কঠিন কোন কাজ নয়। ফুটপাত পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন না থাকার কারণে অনেকেই অল্প পথ পেরুতে রিকসায় উঠেন। এতে রাস্তায় যানজটের সৃষ্টি হয়। এসব ব্যাপারে সবচেয়ে বড় ভূমিকা পালন করতে পারে সরকার।

বারিধারা, ঢাকা থেকে