২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ুন ॥ শিক্ষামন্ত্রী


স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ জঙ্গী ও স্বাধীনতাবিরোধীরা চায় না বাংলাদেশ উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হোক। দেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে তারা বোমা হামলাসহ নানা ধরনের নাশকতামূলক কার্যক্রম পরিচালিত করছে। পরিকল্পিতভাবে শিক্ষার্থীদের বিপথে পরিচালনার চেষ্টা করছে। এ ব্যাপারে শিক্ষক ও অভিভাবকদের সচেতন থাকতে হবে। জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

বুধবার চট্টগ্রামে ‘জঙ্গীবাদমুক্ত শিক্ষাঙ্গন’ শীর্ষক শিক্ষক সমাবেশে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন নুরুল ইসলাম নাহিদ। সকালে চট্টগ্রাম সরকারী মহিলা কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হয় এ সমাবেশ। চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর শাহেদা ইসলামের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষা সচিব মোঃ সোহরাব হোসাইন, ভারপ্রাপ্ত সচিব মোঃ আলমগীর, শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক এসএম ওয়াহিদুজ্জামান, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, বিভাগীয় কমিশনার রুহুল আমিন, চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক সামসুল আরেফিন ও সিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার দেবদাস ভট্টাচার্য।

শিক্ষামন্ত্রী নাহিদ বলেন, বর্তমান সরকারের উন্নয়নমূলক কার্যক্রমকে বাধাগ্রস্ত করতে জঙ্গী ও স্বাধীনতাবিরোধীরা তৎপর হয়েছে। তারা শিক্ষার্থীদের টার্গেট করে মদদ দিচ্ছে। জঙ্গী তৎপরতায় পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে। এ ধরনের কর্মকা- কাম্য হতে পারে না। সন্তানদের ব্যাপারে শিক্ষক ও অভিভাবকদের সজাগ থাকতে হবে। শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, ¯েœহ ভালবাসা এবং আদর দিয়ে পাঠদান করতে হবে। শিক্ষকদের উচিত শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে সেরা শিক্ষক হিসেবে খ্যাতি পাওয়া। যে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের কাছে প্রিয়, তিনিই সেরা শিক্ষক। জঙ্গীবাদ নির্মূলে সকলকে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ছেলেরা কার সঙ্গে মেলামেশা করছে, কোথায় যাচ্ছে তা খেয়াল রাখতে হবে। এক্ষেত্রে শিক্ষক এবং অভিভাবকদের দায়িত্ব রয়েছে। দেশকে জঙ্গীবাদমুক্ত করতে তিনি সকলের সহায়তা কাম্য হতে পারে না। চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের পরিদর্শক সুমন বড়–য়ার সঞ্চালনায় সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ জেসমিন আক্তার, সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আবুল হাসান, রাঙ্গামাটি কলেজের অধ্যক্ষ জাফর আহমদ প্রমুখ।

একই দিনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল উদ্বোধন করেন। এছাড়া বিকেলে তিনি শিক্ষার্থীদের শিক্ষাবর্ষ সমারম্ভ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ সোহরাব হোসাইন। সমারম্ভ বক্তা হিসেবে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর ড. মইনুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশ। ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ বিভাগ সূত্রে জানানো হয়, প্রায় ২২ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত বঙ্গবন্ধুর পোর্ট্রটে ম্যুরাল এর উচ্চতা ১৫ ফুট এবং প্রস্থ ১০ ফুট। পোর্ট্রেট ম্যুরাল হিসেবে এটি চট্টগ্রামে বঙ্গবন্ধুর বৃহৎ ম্যুরাল। এটির প্লাটফর্ম মার্বেল পাথর, শ্বেত পাথর ও গ্রানাইট দ্বারা প্রস্তুত করা হয়েছে।