২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

এমপি লিটন হত্যা রহস্য উন্মোচনে সময় লাগতে পারে


নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা, ১১ জানুয়ারি ॥ সুন্দরগঞ্জের এমপি লিটন হত্যা মামলায় পুলিশ-র‌্যাব ও চৌকস গোয়েন্দা দল সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত অব্যাহত রাখলেও হত্যার রহস্য উদ্ঘাটনে আরও সময়ের প্রয়োজন বলে পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে। হত্যাকা-ের সঙ্গে রাজনৈতিক শত্রুতা, জামায়াত-শিবির ও নব্য জঙ্গীর সংশ্লিষ্টতা এবং জেলা পরিষদ নির্বাচনসহ নানা বিষয়ে অত্যন্ত নিবিড়ভাবে জড়িত বলেই এ হত্যা রহস্যের জট খুলতে সময় লাগছে। তবে পুলিশ গ্রেফতারকৃত সন্দেহভাজনদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদসহ তদন্ত থেকে এ হত্যার রহস্য সম্পর্কে অনেকটাই ইঙ্গিত পাচ্ছেন। যা থেকে চাঞ্চল্যকর হত্যা রহস্যের মূল তথ্য উদ্ঘাটনসহ এর সঙ্গে জড়িত সকলকেই গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনা সম্ভব হবে বলেও তারা আশাবাদী।

এদিকে রিমান্ডে সুন্দরগঞ্জের স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ও সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আহসান হাবীব মাসুদকে জিজ্ঞাসাবাদ করে লিটন হত্যাকা- সম্পর্কে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য উদ্ঘাটন করা সম্ভব হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। তবে তদন্তের স্বার্থে এ ব্যাপারে তারা বিস্তারিত কোন তথ্যই এই মুহূর্তে প্রকাশ করতে চাচ্ছেন না।

আওয়ামী লীগে এমপি লিটনবিরোধী গ্রুপটির অন্যতম সক্রিয় সদস্য আহসান হাবীব মাসুদ। এমপি লিটন ও তার সমর্থক সাধারণ নেতাকর্মীরা দলে তার যোগদানের বিষয়টিকে সহজভাবে নিতে পারেনি। গরু চুরি ও ছিনতাই মামলায় ইতোপূর্বে কারাভোগ করেছেন এবং চিহ্নিত সন্ত্রাসী হিসেবেও তার পরিচিত ছিল।

সুন্দরগঞ্জের পৌর মেয়র মামুনকে জিজ্ঞাসাবাদ ॥ এমপি লিটন হত্যাকা-ের বিষয়ে মঙ্গলবার সুন্দরগঞ্জ পৌর মেয়র আব্দুল্লাহ আল মামুনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বলে জানা গেছে। তার কাছ থেকে এ ব্যাপারে কি তথ্য উদ্ঘাটিত হয়েছে বা কেন মেয়রকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলো সে ব্যাপারে পুলিশ, গোয়েন্দা বিভাগ বা মেয়রের পক্ষ থেকে কোন তথ্যই জানা যায়নি। তবে মেয়র আব্দুল্লাহ আল মামুন মোবাইল ফোনে জানান, তাকে লিটন হত্যাকা-ের ব্যাপারে পুলিশ থানায় নিয়ে কোন জিজ্ঞাসাবাদ করেনি। এ ঘটনা সত্য নয়।

মেয়র আব্দুল্লাহ আল মামুন শিশু শাহাদত হোসেন সৌরভকে এমপির গুলির ঘটনার পর থেকেই লিটনের বিরুদ্ধে কতিপয় নেতাকর্মী নিয়ে একটি কট্টর বিরোধী গ্রুপ গড়ে তোলেন।

লিটনের কবর জিয়ারত করলেন টিপু মুন্সি এমপি ॥ এদিকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও রংপুর-৪ আসনের এমপি মুক্তিযোদ্ধা টিপু মুন্সি বুধবার সন্ধ্যায় সুন্দরগঞ্জের এমপি লিটনের কবর জিয়ারত করেছেন। পাশাপাশি এমপি লিটনের পতœী সৈয়দা খুরশিদ জাহান স্মৃতি, এমপি লিটনের বড় বোন আফরোজা বানুর সঙ্গে মতবিনিময় করেন তিনি। পরে তিনি শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

তিনি বলেন, আইন এমপি লিটনের খুনীদের ছাড় দেবে না। খুনিদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে অবশ্যই। একাধিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গোয়েন্দা সংস্থা এমপি লিটন হত্যার বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: