২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সারা দেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে কর ও ভ্যাট শিক্ষণ ফোরাম


সারা দেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে কর ও ভ্যাট শিক্ষণ ফোরাম

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ করের আওতা বাড়াতে ভবিষ্যত করদাতা সৃষ্টির লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের মধ্যে কর ও ভ্যাট বিষয়ক তথ্য পৌঁছে দিচ্ছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। সে লক্ষ্যে ধারাবাহিকভাবে সারা দেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে কর ও ভ্যাট শিক্ষণ ফোরাম। দেশের স্কুল, কলেজ পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে কর ও ভ্যাট বিষয়ক সচেতনতা তৈরিসহ ভবিষ্যত প্রজন্মকে কর প্রদানে উৎসাহিত করাই এ আয়োজনের উদ্দেশ্য। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দ জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের এমন ব্যতিক্রমী আয়োজনে উৎফুল্ল ও মুগ্ধ। তারা ভবিষ্যতেও বছরব্যাপী এমন আয়োজন অব্যাহত রাখার অনুরোধ জানান।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর রাজধানীর কাকরাইলস্থ আইডিইবি ভবনে ‘বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস’ ও ‘উন্নয়ন মেলা ২০১৭’ উপলক্ষে কর ও ভ্যাট শিক্ষণ ফোরামের আয়োজন করে এনবিআর। এতে দিনব্যাপী দিনব্যাপী আলোচনা, প্রশ্নোত্তর ও কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজ, মতিঝিল সরকারি বালক ও বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পাশাপাশি প্রথমবারের মতো ঢাকা সরকারি আলিয়া মাদ্রাসার শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের কর্মকর্তাসহ প্রায় তিন শতাধিক ব্যক্তিবর্গ এতে অংশগ্রহণ করেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম স্কাইপি ব্যবহার করে ভিডিও কলের মাধ্যমে এই ফোরামের উদ্বোধন করেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মোঃ নজিবুর রহমান।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম স্কাইপি ব্যবহার করে ভিডিও কলের মাধ্যমে ফোরামের উদ্বোধন করে এনবিআর’র চেয়ারম্যান বলেন, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের এ শিক্ষণ ফোরাম দেশব্যাপী ছড়িয়ে দেয়া হবে। স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও প্রশিক্ষণ একাডেমিগুলোতে কর ও ভ্যাট বিষয়ক কারিকুলাম অর্ন্তভূক্ত করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

এনবিআর’র গবেষণা ও পরিসংখ্যান বিভাগের মহাপরিচালক মোহাম্মদ বেলাল হোসাইন চৌধুরী বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের চাহিদা ও মনন চিন্তা করে তাদের প্রয়োজন উপযোগী করে ‘কর ও ভ্যাট শিক্ষণ ফোরাম’ আয়োজন করছি। শিক্ষার্থীদের উচ্ছ্বাস, উল্লাস ও মনোযোগ আমাদেরকে প্রচন্ডভাবে উদ্ধুদ্ধ করেছে। তাঁরা আগ্রহ নিয়ে এ প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এ ধরণের উদ্ভাবনী ও সৃষ্টিশীল কাজে সর্ব সময়ই অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। ভবিষ্যতেও করবে।

অনুষ্ঠানে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত থেকে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। শিক্ষার্থীরা করের আওতা বাড়ানো, করসেবা অনলাইন ভিত্তিক করা, কর আহরণ ও সারাদেশের মানুষের মধ্যে কর বিষয়ে সচেতনতা তৈরিতে করের বিভিন্ন দিক পাঠ্য বইয়ে অর্ন্তভূক্ত করা, প্রচারণা ও করভীতি দূর করতে শিক্ষার্থীদের সহায়তা নেয়ার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের কর বিষয়ে প্রশিক্ষণের ওপর গুরুত্বারোপ করেন। অভিব্যক্তি ব্যক্ত করে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা বলেন, এই ফোরামের মাধ্যমে কর ভ্যাট সম্পর্কিত অনেক তথ্য জানতে পেরেছি। কোথায় কিভাবে কর ও ভ্যাট দিতে হয় বিস্তারিত জানা হয়েছে তাও।

এসময়, কর ও ভ্যাট শিক্ষণ ফোরামের আওতায় সারাদেশে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেন শিক্ষার্থীরা। অনুষ্ঠানে টিভিসি ও ডকুমেন্টারিতে ভ্যাট ও কর বিষয়ে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন বিষয় জানতে পেরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। পরে শিক্ষার্থীরা টিভিসি ও ডকুমেন্টারির ওপর কুইজ প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। প্রতিযোগিতায় সেরা দশজন শিক্ষার্থী বাছাই করে পুরস্কৃত করা হয়। সেরা শিক্ষার্থী ও শিক্ষকগণকে পৃথকভাবে সম্মাননা ও সনদপত্র প্রদান করা হয়।