২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ট্রাম্পের মন্তব্যগুলো স্পষ্টতই বর্ণবাদী ॥ গ্যারি জনসন


যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লিবারটেরিয়ান পার্টির পদপ্রার্থী গ্যারি জনসন রবিবার বলেছেন, রিপাবলিকান পার্টির পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাম্প্রতিক মন্তব্যগুলো স্পষ্টতই বর্ণবাদী। এর একদিন আগেই ট্রাম্প ইহুদিবিদ্বেষী অভিযোগের সম্মুখীন হন এবং গত সপ্তাহে তিনি বলেছেন, প্রেসিডেন্ট হলে তিনি হিজাব পরা সরকারী কর্মীদের বরখাস্তের বিষয়টি বিবেচনা করবেন। খবর গার্ডিয়ানের।

সিএনএনের স্টেট অব দি ইউনিয়ন অনুষ্ঠানে জনসন বলেন, ট্রাম্প অন্তত ১০০ বিতর্কিত বক্তব্য দিয়েছেন, যা কোন ব্যক্তিকে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দৌড়ে অযোগ্য প্রতিপন্ন করতে পারে। কিন্তু মনে হয় না ট্রাম্পের ওপর এ বিষয়গুলো প্রভাব ফেলেছে। তিনি যে কথাগুলো বলেছেন, তা উত্তেজনা সৃষ্টিকারী ও বর্ণবাদী। গত সপ্তাহের প্রথম দিকে এক সমাবেশে নিউহ্যাম্পশায়ারের এক নারী ট্রাম্পকে জিজ্ঞাসা করেন যে, যদি তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন তাহলে তিনি ট্রান্সপোর্টেশন সিকিউরিটি এ্যাডমিনিস্ট্রেশন কর্মী যারা হিজাব পরেন তাদের কি বদলি করে দেবেন। ট্রাম্পের উত্তরে বলেন, আমরা এ বিষয়টি বিবেচনা করে দেখছি। আমাদের আরও অনেক বিষয় বিবেচনা করে দেখতে হবে। সমাবেশের সময় আকাশে উড়ন্ত এক বিমান দেখিয়ে ট্রাম্প বলেন, এটি মেক্সিকোর বিমান হতে পারে। তারা হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। ট্রাম্প শনিবার টুইটারে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের একটি ছবি পোস্ট করেন। এতে দেখা যায়, ডলারের স্তূপের ওপর হিলারির ছবি বসানো এবং পাশের একটি ছয় বিন্দু বিশিষ্ট তারকার মধ্যে লেখা ‘সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত প্রার্থী’। তবে এই ছবি ও ‘আমেরিকা প্রথম’ ফ্রেজের জন্য তার বিরুদ্ধে দ্রুত ইহুদীবিদ্বেষী অভিযোগ করা হয়। এ্যান্টি ডিফামেশন লিগ ট্রাম্পকে এই ফ্রেজ ব্যবহার না করার অনুরোধ করেছে। কারণ এর সঙ্গে ১৯৩০ এর দশকের নাৎসি সমর্থকদের ইতিহাস আছে। এদিকে ট্রাম্প বা তার প্রচার শিবির কয়েক ঘণ্টা পর টুইটটি মুছে দেয় এবং একই বিষয়ে নতুন একটি ছবি পোস্ট করে।