মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১১ আশ্বিন ১৪২৪, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

রপ্তানিতে ধাক্কা আসলেও নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না

প্রকাশিত : ৪ জুলাই ২০১৬, ০৪:৫১ পি. এম.

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ গুলশান হামলার ঘটনায় দেশের তৈরি পোশাক রপ্তানিতে প্রাথমিকভাবে একটি ধাক্কা আসতে পারে। তবে এতে খুব বেশি নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়েছেন তৈরি পোশাক রপ্তানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান। সোমবার দুপুরে আসন্ন ইদুল ফিতরকে সামনে রেখে ‘রপ্তানিমুখী তৈরি পোশাক শিল্পের বতমান পরিস্থিতি’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি।

এ ঘটনায় নিহতের মধ্যে ছয়জন তৈরি পোশাক খাত সংশ্লিষ্ট দাবি করে সংগঠনের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বলেন, রাজধানীর গুলশানের যে ঘটনা ঘটেছে তা কাম্য নয়। এ ঘটনায় তৈরি পোশাক শিল্পে প্রাথামিকভাবে একটি ধাক্কা আসতে পারে। কারণ এ ঘটনায় নিহতদের মধ্যে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে ছয় জন দেশি-বিদেশি নাগরিক তৈরি পোশাকের সাথে সংশ্লিষ্ট। তবে এরই মধ্যে বেশ কয়েকজন বড় ক্রেতা তাদের ব্যবসা কমাবে না বলে আমাদের জানিয়েছেন। এ ঘটনায় রপ্তানিতে প্রাথমিক ধাক্কা আসলেও তাতে খুব বেশি প্রভাব পড়বে না। তিনি আরো বলেন, ঈদকে সামনে রেখে শ্রমিক ভাইদের বেতন বোনাস যথাসময়ে পরিশোধ করতে বিজিএমইএ ও সরকার মিলে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। এরই মধ্যে ৯টি বিভাগে ভাগ করে আঞ্চলিক কমিটি ও ১৫টি মনিটরিং কমিটি গঠন করা হয়েছে। এর মাধ্যমে এক হাজার ৩১৯টি প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করা হয়েছে। এছাড়া ৪৪টি কারখানার সমস্যা সমাধান করা হয়েছে। এছাড়াও ৯৯ দশমিক ৯৫ শতাংশ তৈরি পোশাক কারখানায় উৎসব ভাতা প্রদান করা হয়েছে।

বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, গামেন্টস শিল্পে আইনশৃংখ্লা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা ও শ্রমিকদের কল্যাণ নিশ্চিত করতে ব্যাংক খোলা রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। বেতনাদি পরিশোধে ২ থেকে ৪ জুলাই পর্যন্ত ব্যাংক লেনদেন চালুর ব্যবস্থা করা হয়েছে। এর ফলে এবার পোশাক খাতে তেমন কোনো উল্লেখযোগ্য সমস্যা তৈরি হয়নি। তাছাড়া যেকোনো সমস্যার তাৎক্ষণিক সমাধানে একটি নিয়ন্ত্রক কক্ষ সাবক্ষণিক খোলা রাখা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বিজিএমইএ’র সিনিয়র সহ-সভাপতি ফারুক হাসান, সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন ছাড়াও পরিচালকরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রকাশিত : ৪ জুলাই ২০১৬, ০৪:৫১ পি. এম.

০৪/০৭/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: