১৪ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

পার্বতীপুরের ঐতিহ্যবাহী জ্ঞানাঙ্কুর পাইলট হাই স্কুলের খেলার মাঠের জায়গা দখল


পার্বতীপুরের ঐতিহ্যবাহী জ্ঞানাঙ্কুর পাইলট হাই স্কুলের খেলার মাঠের জায়গা দখল

নিজস্ব সংবাদদাতা, পার্বতীপুর ॥ পার্বতীপুর শহরের ঐতিহ্যবাহী জ্ঞানানঙ্কুর পাইলট হাই স্কুলের খেলার মাঠের ২০ শতকেরও বেশী পরিমান জায়গা দখল হয়ে গেছে। পার্বতীপুর পৌর কর্তৃপক্ষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এই পরিমান জায়গায় অবৈধভাবে মাস্টার ড্রেন ও রাস্তা নির্মান করেছেন। এলজিআরডি মন্ত্রনালয়ের গুরুত্বপূর্ন নগর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের প্রায় ১৮ লাখ টাকা ব্যয়ে বাদল ট্রের্ডাস নামে ঠিকাদার এটি বাস্তবায়ন করেছেন। উল্লেখ্য জলাধার ও খেলার মাঠের আকার পরিবর্তন করা যাবেনা মর্মে হাইকোটের রুলিং রয়েছে। এ ছাড়াও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের খেলার মাঠ রক্ষা ও সংরক্ষনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কঠোর নির্দেশনা রয়েছে। তবে বাস্তবতা এ নির্দেশা কেউ মানছেনা। অভিযোগ উঠেছে প্রধান শিক্ষকের অযোগ্যতায় প্রতিষ্ঠানের সম্পত্তি বেহাত হয়ে যাচ্ছে। প্রতিষ্ঠানের একাধিক অভিভাবক ও শহরের শুধীজন জানিয়েছেন জেলার মধ্যে নামকরা এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তার মত প্রধান শিক্ষক দায়িত্বে থাকলে আরও বেহাল অবস্থা হবে । ঘটনাস্থলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় অদ্যাবধি স্কুল কর্তৃপক্ষ মাপ-জোক করে মাঠের জায়গার সীমানা নির্ধারন করেনি । ফলে মনগড়া নিজের মত করে যে যেভাবে পারছে অবকাঠামো নির্মান করছে। উত্তর পার্শ্বে মাঠের সীমানা ঘেষে নির্মিত রাস্তা ও বিল্ডিংগুলো কার জায়গায় তা বোঝা মুসকিল । এভাবেই জায়গা দখল হয়ে মাঠের আকার সংকোচিত হয়ে আসছে। বিঘœ ঘটেছে ছাত্র-ছাত্রীদের খেলাধূলার । এ ব্যাপারে জানতে চেয়ে প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক মো. আসেকউল্লাহকে মোবাইল করলে তিনি ফোন ধরেননি। স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ইউএনও তরফদার মাহমুদুর রহমান সোমবার জনকন্ঠকে জানান, পদাধিকার বলে তিনি নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত। অবকাঠামো নির্মানের শুরুতে বাধা দিলে এ সমস্যার সৃষ্টি হতো না। অচিরেই মাঠের সীমানা মেপে প্রাচীর বেষ্টনী দেওয়ার ব্যবস্থা নেওয়া হবে তিনি জানান।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: