২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

গণজমায়েতে মেসিকে ফেরার অনুরোধ


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ লিওনেল মেসিকে অবসর ভেঙ্গে ফিরিয়ে আনতে চলছে নানা আয়োজন। বিশেষ করে মেসির দেশ আর্জেন্টিনার জনগণ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করে চলেছে। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ সময় রবিবার সকালে আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েন্স আয়ার্সে গণজমায়েত করেন ভক্ত-সমর্থকরা। সেখানে দেশটির প্রেসিডেন্ট, সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলার দিয়াগো ম্যারাডোনাসহ ভক্তরা মেসিকে ফেরার অনুরোধ জানান।

আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েন্স আয়ার্সের সেন্ট্রাল এ্যাভিনিউতে অবস্থিত একটি স্মৃতিসৌধ অবেলিস্ক। যেখানে ঐতিহ্যগতভাবে খেলাধুলার বিজয়কে উদযাপন করে থাকেন আর্জেন্টাইনরা। মেসিকে জাতীয় দলে ফেরাতে ঝড়-বৃষ্টি উপক্ষো করে সন্ধ্যায় সেই অবেলিস্কের সামনে জড়ো হয়েছিলেন ভক্ত-সমর্থকরা। এই সমাবেশে লাখ লাখ মানুষের ঢল আশা করা হয়েছিল। কিন্তু প্রবল বৃষ্টি ও ঠা-া আবহাওয়ার কারণে প্রত্যাশিত জণসমাগম হয়নি! এরপরও যারা রাস্তায় নেমেছিলেন তাদের একটাই আকুতি, ‘ফিরে এসো মেসি’। মেসিকে ফেরাতে মাঠে নামেন স্বয়ং আর্জেন্টাইন ফুটবল ঈশ্বর ম্যারাডোনা, আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট থেকে শুরু করে বিশ্বজুড়ে সাবেক ও বর্তমান ফুটবল তারকা, অন্যান্য ক্রীড়া ব্যক্তিত্বরা।

প্রিয় তারকার মন ভাঙাতে পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচী অনুযায়ী, রাজধানী বুয়েন্স আয়ার্সে এরই মধ্যে বিশাল র‌্যালির আয়োজন করেছে আর্জেন্টাইন ফুটবলপ্রেমীরা। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে চলে এর প্রচার। ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব, শিল্পী ও রাজনীতিবিদরাও মেসিকে ফিরে আসার আহ্বান জানান। বৃষ্টির বাধা উপেক্ষা করেই অবেলিস্কে মনুমেন্টের সামনে জড়ো হন মেসির সমর্থকরা। অনেকেই আর্জেন্টিনা পতাকায় ‘মেসিকে ঈশ্বরের সঙ্গে তুলনা করেন’। হার্নান সানচেজ নামক এক মেসি ভক্ত বলেন, আর্জেন্টিনা ও আন্তর্জাতিক ফুটবল ইতিহাসে মেসিই সেরা খেলোয়াড়। পরবর্তী হাজার বছরে আমরা তার মতো কাউকে দেখতে পারব বলে আমি মনে করি না। এক ফেরিওয়ালা মেসির ছবি সংবলিত টি-শার্ট হাতে নিয়ে ঘোরেন। যেখানে লেখা ছিল, লিও আমাদের ছেড়ে যেও না। র‌্যালি চলাকালীন একজন জাতীয় পতাকায় তুলে ধরেন, ‘মেসির প্রতি আমার বিশ্বাস আছে।’ আরেকজনকে দেখা যায়, ‘লিও ডোন্ট লিভ’ লেখা জাতীয় পতাকা হাতে দাঁড়িয়ে থাকতে। সান্টিয়াগো বারডারো নামের মেসি ভক্ত বলেন, আমি বলতে চাই, প্রত্যেক ৫০০ মিলিয়ন বছরে একজন মেসি জন্মায়। আমরা সেটাই উপভোগ করছি। বিধাতার কাছে এজন্য কৃতজ্ঞ যে আমরা সেই সময়টাতে বাস করছি। আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট মাউরিসিও মাক্রি মনেপ্রাণে চাচ্ছেন দলে ফিরে আসুক মেসি। লিওকে তিনি অনুরোধও করেছেন। তিনি আশা করছেন, অবসর ভেঙ্গে মাঠে ফিরবেন মেসি। গোটা ফুটবল বিশ্ব ফের মেসি জাদুতে মোহবিশ্ব হয়ে উঠবে। আর্জেন্টাইন প্রেসিডেন্ট বলেন, আবারও বলছি মেসি ঈশ্বরের দান। আমরা ভাগ্যবান আমাদের দেশে বিশ্বের সেরা ফুটবলার আছে। আমি আশাবাদী মেসি জাতীয় দলের হয়ে খেলবে। ও আমাদের ছেড়ে যাবে না। এ সময় ম্যারাডোনা বলেন, মেসি আবারও জাতীয় দলে ফিরবে। কেননা দলে তাকে খুব বেশি প্রয়োজন। বিশ্বচ্যাম্পিন হতে রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলবে সে। এমনটাই আমার বিশ্বাস।

মেসির সঙ্গে শোকে অবসর নেয়ার কথা জানিয়েছিলেন জ্যাভিয়ের মাশ্চেরানোও। তবে রবিবার এক সাক্ষাতকারে বিষয়টি অস্বীকার করেছেন আর্জেন্টিনার ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার। মাশ্চেরানো বলেন, আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে বলছি, আমি কোন মন্তব্য করব না। আমি যা ভাবছি তা নিজের মধ্যেই রাখব এবং কাউকে কিছু বলতে চাই না। কারণ আমরা মাত্রই একটি খুব কষ্টের কোপা আমেরিকা শেষ করেছি। তিনি আরও বলেন, কোন সিদ্ধান্ত নেয়ার সময় এটা নয়। বেশ কিছুদিন ধরে গুঞ্জন চলছে, ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসে যেতে পারেন মাশ্চেরানো। তবে বার্সিলোনার এই ফুটবলার জানান, কাতালান ক্লাবটির হয়ে অনেক বছর খেলে যেতে চান তিনি।

অবসরের সিদ্ধান্ত নেয়া মেসির পাশে দাঁড়িয়েছেন কার্লোস তেভেজ। খেলোয়াড়দের উপেক্ষা করায় আর্জেন্টিনা ফুটবল এ্যাসোসিয়েশনকে (এএফএ) এক হাত নেয়ার সুযোগটিও হাতছাড়া করেননি বোকা জুনিয়র্সের এই ফরোয়ার্ড। তেভেজ বলেন, এএফএ চরম একটা জগাখিচুড়ি। লিও দেখেছে, জাতীয় দলের জন্য ছেলেরা নিজেদের সবটুকু নিংড়ে দিচ্ছে কিন্তু এএফএ তাদের উপেক্ষা করছে। তিনি আরও বলেন, মেসি যে অবস্থায় আছে, আমাদের নিজেদের সেখানে নিতে হবে। সে ক্লান্ত এবং এটাই (অবসরের সিদ্ধান্ত) স্বাভাবিক। আমিও কয়েকবার জাতীয় দল নিয়ে ক্লান্ত হয়েছিলাম।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: