২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বর্ষায় পদ্মা-মেঘনায় দেখা মিলছে না ইলিশের


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বর্ষার শুরুতে চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনায় কাক্সিক্ষত ইলিশের দেখা মিলছে না। আর সামনে ঈদ হওয়ায় ইলিশ নির্ভর সেখানকার অর্ধ লাখ জেলে চরম বিপাকে পড়েছে। জেলা মৎস্য কর্মকর্তা জানালেন, এ পরিস্থিতিতে তাদের সরকারী সহায়তা দেয়া হবে। মৎস্যবিজ্ঞানীরা বলছেন, পুরোপুরি বর্ষা শুরু হলেই সাগর থেকে নদীতে আসতে শুরু করবে ইলিশ।

চাঁদপুরের উত্তরের ষাটনল থেকে দক্ষিণে চরভৈরবী পর্যন্ত দীর্ঘ ৬০ কিলোমিটার পদ্মা-মেঘনার কোথাও জেলেদের জালে ধরা পড়ছে না ইলিশ। তারপরও উত্তাল নদীতে জাল ফেলে চলছে ইলিশ ধরার ব্যর্থ চেষ্টা। অন্য বছর এই সময় সামান্য কিছু হলেও মাছ পাওয়া যেত। কিন্তু এবার মাছ না পাওয়ায় হতাশ জেলেরা নদী তীরে জাল বুনে অলস সময় কাটাচ্ছেন। এতে ঈদ আনন্দ অনিশ্চিত হওয়ায় হতাশ জেলেদের ঈদ আনন্দ।

জেলেদের দুর্ভোগ বিবেচনা করে তাদের সহায়তা করা হবে বলে জানালেন মৎস্য কর্মকর্তা সফিকুর রহমান। তিনি বলেন, সরকার ৪১ হাজার ৪২ জনের জন্য প্রতিজনকে ৪০ কেজি হারে চাল দেয়া হবে। আর ১ হাজার মৎস্যজীবীকে ১০ হাজার টাকা দিয়ে বিকল্প কর্মসংস্থানের উপকরণ দেয়া ব্যবস্থা করা হয়েছে।

অবশ্য দক্ষিণের সাগরে ইলিশ পাওয়া গেলেও পদ্মা-মেঘনায় আরও পরে ধরা পড়বে এমনটাই আশা করছেন চাঁদপুর মৎস্য গবেষণা ও নদী কেন্দ্র ইলিশ বিশেষজ্ঞ ও প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. আনিছুর রহমান। জেলায় সরকারী হিসেবে জেলের সংখ্যা ৪২ হাজার। আর তাদের পরিবারের সংখ্যা দেড় লাখ।