মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৬ আশ্বিন ১৪২৪, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

কাজ সমাপ্ত না করে জনস্বাস্থ্য বিভাগের ৩৩ লাখ টাকার চুড়ান্ত বিল উত্তোলন করেছে ঠিকাদার

প্রকাশিত : ৩ জুলাই ২০১৬, ০৭:৩৪ পি. এম.

নিজস্ব সংবাদদাতা, লালমনিরহাট ॥ কাজ সমাপ্ত না করেই ৩৩ লাখ টাকার বিল উত্তোলন করেছে জেলা জামায়াতের সেক্রেটারী জেনারেলের ছোট ভাই মেসার্স ফাতেমী ট্রেডাসের মালিক হিমেল। অনৈতিক সুযোগ নিয়ে এই বিল উত্তোলনের সহায়তা করেছে লালমনিরহাট জেলা জনস্বাস্থ্য বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী বাদলা আলম।

জানা গেছে, জেলার হাতীবান্ধা ও সদরের কাজীর চওড়া, শাজাহান কলোনী, বালাপুকুর, কাশিরাম, খালিশা বাড়াজান, ঈশ্বরকোল, নওদাবাস, পৃত্থফাঁটা ও রুদ্ধেশ্বর স্কুলের ৯টি স্যানেটিশন ল্যান্ট্রিন নির্মানের কাজ পায় জেলা জামায়াতের সেক্রেটারী জেনারেলের ছোট ভাই মেসার্স ফাতেমী ট্রেডার্সের মালিক হিমেল। চলতি বছরের ৩০ জুনের মধ্যে ৯টি স্কুলের ল্যান্ট্রিন গুলো তৈরী করে দেয়ার কথা ছিল। কিন্তু নির্মান কাজ শতকরা সত্তর ভাগ হয়েছে। কাজের রানিং বিল ইতোমধ্যে উত্তোলন করেছে। ৩০ জুন প্রজেক্টটি বন্ধ হয়ে যাবে। তাই ঠিকাদার নির্বাহী প্রকৌশলীর সাথে যোগসাজস করে কাজ না করেই ১৩ জুন ১৩ লাখ ও ২৮ জুন ১২ লাখ টাকা উত্তোলন করেছে। ইতিপূর্বে রানিং বিলসহ প্রায় ৩৩ লাখ টাকা চুড়ান্ত বিল উত্তোলন করেছে। এই ঘটনায় তোলপাড় শুরু হয়ে গেছে।

কাজ না করে বিল উত্তোলনের ঘটনাটিকে পুকুর চুরির সাথে তুলনা করেছে সূধিজনেরা। এ ব্যাপারে জনস্বাস্থ্য বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী বাদশা আলম জানান, ভাল ভেবে কাজ সমাপ্ত না করার পরও বিল দিয়েছি। কাজ ঈদের পরে করে নিব। বিষয়টি অনৈতিক হয়েছে বলে স্বীকার করেছেন।

প্রকাশিত : ৩ জুলাই ২০১৬, ০৭:৩৪ পি. এম.

০৩/০৭/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: