মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১১ আশ্বিন ১৪২৪, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

ইইউসহ বিভিন্ন দেশের নিন্দা জঙ্গী দমনে সহায়তার প্রতিশ্রুতি

প্রকাশিত : ৩ জুলাই ২০১৬

বিডিনিউজ ॥ রাজধানীর গুলশানের কূটনীতিকপাড়ার ক্যাফেতে জঙ্গী হামলায় হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ (ইইউ) বিভিন্ন দেশ। হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানানোর পাশাপাশি শনিবার এক বিবৃতিতে বাংলাদেশের পাশে থাকার ঘোষণা দেন ২৮ দেশের জোট ইইউয়ের হাই রিপ্রেজেনটেটিভ ফেদেরিকা মগেরিনি।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘এই অন্ধকার সময়ে আমরা বাংলাদেশের সরকার ও জনগণের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করছি, যেখানে কর্তৃপক্ষের (আইনশৃঙ্খলা বাহিনী) সঙ্গে দেশটির জনগণও এই হামলার ভুক্তভোগী।’

গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে শুক্রবার রাত পৌনে ৯টার দিকে একদল অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী হানা দিয়ে বিদেশীসহ অন্তত ৩০ জনকে জিম্মি করার পর তাদের উদ্ধারে জঙ্গীদের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের কয়েকদফা গোলাগুলি ও সংঘর্ষে দুই পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু হয়।

সন্ত্রাসবাদকে ‘বৈশ্বিক হুমকি’ আখ্যায়িত করে ইইউ প্রতিনিধি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় হিসেবে আমাদের সবাইকে এক হয়ে এটাকে মোকাবেলা করতে হবে।’

যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স ও জার্মানির নিন্দা ॥ জঙ্গী হামলার নিন্দা ও বাংলাদেশের সঙ্গে সংহতি জানিয়ে ফ্রান্সের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো বিবৃতিতে বলা হয়, ‘যে কোন স্থানে সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায় আন্তর্জাতিক সহযোগিতা জোরদারে আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।’

গত বছরে একই ধরনের সন্ত্রাসী হামলার শিকার হওয়া প্যারিস বিবৃতিতে হতাহতের পরিবারের প্রতি শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করে।

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র ও কমনওয়েলথ কার্যালয়ের প্রতিমন্ত্রী হুগো সোয়্যার এক টুইটার পোস্টে শোক প্রকাশ করে বাংলাদেশের প্রতি সংহতি প্রকাশ করেন।

ঢাকার হামলায় জার্মানির বার্লিন থেকে নিন্দা জানিয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রাঙ্ক-ওয়ালটার স্টাইনমেয়ার।

গুলশানে ‘বর্বর’ হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘বিবেকবর্জিত সন্ত্রাসীর নৃশংসতার মাধ্যমে আরও একবার আঘাত করল এবং বিভিন্ন মানুষকে তাদের সঙ্গে মরতে বাধ্য করল। আমি এই বর্বর হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানাই।’

প্রকাশিত : ৩ জুলাই ২০১৬

০৩/০৭/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: