২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ঈদ ভ্রমণপিপাসুদের জন্য প্রস্তুত বিনোদন কেন্দ্র


খোকন আহম্মেদ হীরা, বরিশাল ॥ জীবনকে নতুনভাবে রাঙানোর উৎসব ঈদ। আর সেই ঈদ উপলক্ষে প্রতিবছরের ন্যায় এবারও ঈদের খুশিতে মুখরিত হয়ে উঠবে বরিশালের প্রতিটি বিনোদন কেন্দ্র। সে জন্য ইতোমধ্যে পুরোপুরি প্রস্তুত রয়েছে নগরীর বিভাগীয় প্রতœতাত্ত্বিক জাদুঘর, বিনোদন কেন্দ্রসহ জেলার একাধিক বিনোদন কেন্দ্র ও দেশের অন্যতম সেরা স্থাপত্যশৈলীর নয়নাভিরাম স্থাপনা এবং পর্যটন এলাকা হিসেবে ব্যাপক পরিচিতি পাওয়া গুঠিয়ার বায়তুল আমান জামে মসজিদ ঈদগাহ কমপ্লেক্স।

ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে নগরীসহ পার্শ¦বর্তী উপজেলায় বসবাসরত এবং ঢাকা থেকে ঈদ উদ্যাপন করতে আসা মানুষের জন্য এখন অপেক্ষার প্রহর গুনছে বিভাগীয় জাদুঘর, বিনোদন কেন্দ্রসহ পর্যটন এলাকাটি। ঈদকে সামনে রেখে আধুনিক মনোলোভা সাজে সাজানো হয়েছে নগরীর বিভাগীয় প্রতœতাত্ত্বিক জাদুঘর, অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র প্লানেট পার্ক (শিশু পার্ক), কীর্তনখোলা নদী তীরের মনোমুগ্ধকর মুক্তিযোদ্ধা পার্ক, নয়নাভিরাম বঙ্গবন্ধু উদ্যান, গ্রীন সিটি পার্ক, কীর্তনখোলার তীরবর্তী ত্রিশ গোডাউনের রিভার ভিউ পার্ক ও বধ্যভূমি, শহীদ কাঞ্চন উদ্যান, প্রকৃতি ঘেরা শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সেতু, গৌরনদীর শাহী ৯৯ পার্ক, মাধবপাশার দুর্গা সাগর এবং দর্শনীয় পর্যটন কেন্দ্র গুঠিয়ার বায়তুল আমান জামে মসজিদ ও ঈদগাহ কমপ্লেক্স ভবন এলাকাটি। নতুনভাবে ঢেলে সাজানো এ জাদুঘর, বিনোদন কেন্দ্রগুলোসহ পর্যটন এলাকাটি এবারের ঈদে বরিশালবাসীর সর্বোচ্চ বিনোদনের খোরাক জোগাবে বলে মনে করছেন নগরীর সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বরা।

সূত্রমতে, নান্দনিক নদী প্রকৃতির এই দেশটিতে পর্যটন শিল্প বিকাশের জন্য ২০১৬ সালকে ‘পর্যটন বর্ষ’ ঘোষণা করেছেন বর্তমান সরকার। রাষ্ট্রীয় এই উপলব্ধি ও চেতনার বেশ কয়েক বছর আগেই নগরীর প্রতিশ্রুতিশীল উদ্যোক্তা সাবেক সিটি মেয়র শওকত হোসেন হিরণের ব্যক্তিগত উদ্যোগে নগরীর বাহাদুর শাহ সড়কের সামনে গড়ে তুলেছেন অত্যাধুনিক মনকাড়া বিনোদন কেন্দ্র প্লানেট পার্ক। এবারের ঈদে বিনোদন প্রেমিদের আকর্ষণীয় করার জন্য ইতোমধ্যে মজার মজার নতুন রাইড সংযোজন করা হয়েছে এ পার্কে। তার (হিরণ) উদ্যোগে সরকারীভাবে নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যানকে নয়নাভিরাম করে সাজানো হয়। এছাড়া শওকত হোসেন হিরণের উদ্যোগে কীর্তনখোলা নদী তীরে নির্মিত মনোমুগ্ধকর মুক্তিযোদ্ধা পার্ক এবং শহীদ কাঞ্চন উদ্যানের যৌন্দর্য ও প্রকৃতি ভ্রমণপিপাসুদের আত্মার খোড়াক জুগিয়েছে। অতিসম্পতি বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু উদ্যানের পাশে নির্মিত হয় শিশুদের বিনোদনের জন্য ভিন্নতর গ্রীন সিটি পার্ক। বহুকাল থেকেই নগরী সংলগ্ন বাবুগঞ্জের মাধবপাশার দুর্গা সাগরের ঐতিহ্য ছড়িয়ে রয়েছে দেশ-বিদেশে। বর্তমান জেলা প্রশাসক ড. গাজী মোঃ সাইফুজ্জামানের উদ্যোগে দুর্গা সাগরের সৌন্দর্য বৃদ্ধিসহ ভ্রমণপিপাসুদের নিরাপত্তার জন্য অসংখ্য সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। খুব শীঘ্রই দুর্গা সাগর এলাকায় উন্মুক্ত হরিণ খামারের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।