২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

স্টিফেন হকিংকে হত্যার হুমকি মার্কিন নারীর


ব্রিটিশ পদার্থবিদ ও প্রখ্যাত বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিংকে (৭৪) হত্যার হুমকি দেয়ার অপরাধে এক মার্কিন নারীকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। এজন্য তাকে চার মাসের কারাদ- দেয়া হয়। তবে এই দ- আপাতত স্থগিত রাখা হয়েছে। খবর টেলিগ্রাফের।

স্পেনের ক্যানারি আইল্যান্ডের টেনেরিফে ও লা পালমায় ২৭ জুন থেকে ২ জুলাই পযন্ত বার্ষিক স্টারমাস জোতির্বিদ্যা উৎসব চলে। উৎসবে তৃতীয়বারের মতো হকিং যোগ দিয়েছেন এবং বুধবার সেখানে বক্তব্য দিয়েছেন। এই উৎসবের কাছাকাছি এলাকা থেকে ওই নারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে জন্ম নেয়া ও নরওয়েতে বসবাস করা জেনি থেরেসা সি (৩৭) নামে ওই নারীর বিরুদ্ধে কয়েক দফা হুমকি দেয়ার অপরাধের দায়ে অভিযুক্ত করা হয়েছে। পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে নিবৃত্তমূলক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। যাতে তিনি ব্রিটিশ বিজ্ঞানীর পাঁচশ মিটারের কাছাকাছি যেতে না পারেন। আগামী আট মাসের জন্য হকিংয়ের সঙ্গে তার যোগাযোগের জন্যও নিষিদ্ধ করা হয়। দক্ষিণাঞ্চলীয় বিনোদনকেন্দ্র এ্যারোনা আদালতে বিচারকের সামনে অক্সফোর্ডে জন্ম নেয়া অধ্যাপককে একটি গোপন শুনানিতে অংশ নিতে হয়। হকিংকে তার মেইল ও টুইটারে হত্যার হুমকি দেয়ার পর তাকে পুলিশের বিশেষ নিরাপত্তা দেয়া হয়। ওই নারীকে পিরামিড ডি এ্যারোনা কনফারেন্স সেন্টারের কাছে হোটেল কনকুইসটাডোর থেকে গ্রেফতার করা হয়। স্পেনের আইন অনুযায়ী, জেনির দু’বছর জেল হতে পারত। তবে স্পেনে প্রথম অপরাধ করায় তার কারাদ- স্থগিত করা হয়।

বৃহস্পতির কাছে জুনো

নাসার জুনো নভোযানটি এখন বৃহস্পতি গ্রহের কাছে। আশা করা হচ্ছে ৪ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবসে এটি বৃহস্পতির কক্ষপথে প্রবেশ করে। নভোযানটি গত পাঁচ বছরে মহাকাশে ১৭০ কোটি মাইল পরিভ্রমণ করেছে। এটি যদি বৃহস্পতিবর কক্ষপথে প্রবেশ না করে এর পাশ দিয়ে অতিক্রম করে চলে যায় তবে মিশন ব্যর্থ বলে গণ্য হবে। বৃহস্পতির আবহাওয়া ও চৌম্বক ম-ল পর্যবেক্ষণ ও মানচিত্র তৈরি করাই নাসার এই মিশনের প্রধান লক্ষ্য। -দ্য ভার্জ

বিলুপ্তির মুখে অডেলি পেঙ্গুইন

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে যেসব প্রজাতির প্রাণী বিলুপ্তির ঝুঁকির মুখে রয়েছে অডেলি পেঙ্গুইন তার অন্যতম। বৈষ্ণিক উষ্ণতা বৃদ্ধির ফলে এই পেঙ্গুইনের আবাসস্থল ক্রমেই সঙ্কুচিত হয়ে আসছে। পুরো দক্ষিণ মেরুজুড়ে এর বসবাস থাকলেও এই পেঙ্গুইনের সংখ্যা এখন অনেক কমে গেছে। ইউনিভার্সিটি অব ডেলাওয়ারের গবেষকরা বলছেন উষ্ণায়নের বর্তমান ধারা অব্যাহত থাকলে ২০৬০ সালের মধ্যে এগুলো পুরোপুরি বিলুপ্ত হয়ে যেতে পারে। -টেক টাইমস