১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

মানবের কাছে দানবের পরাজয় হবেই ॥ নাসিম


বিশেষ প্রতিনিধি ॥ আওয়ামী লীগ সভাপতিম-লীর সদস্য ও কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, একাত্তরের ঘাতক যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বানচাল, সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি নষ্ট এবং দেশকে অস্থিতিশীল করতে জামায়াত-শিবিরের প্রশিক্ষিত খুনিরা পরিকল্পিতভাবে দেশে হত্যাকা- চালাচ্ছে। তবে মানবের কাছে দানবের পরাজয় হবেই। দানবের কাছে মানব কোন দিন পরাজিত হবে না।

শুক্রবার কেন্দ্রীয় ১৪ দলের পক্ষ থেকে রাজধানীর বাসাবো ধর্মরাজিক বৌদ্ধ মহাবিহার পরিদর্শনে গিয়ে বৌদ্ধ মন্দিরের পূজারি ভক্তদের সঙ্গে সাক্ষাত এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উর্ধতন কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার দুপুরে একটি চিঠি পাঠিয়ে বাসাবো ধর্মরাজিক বৌদ্ধ মহাবিহারের প্রধান শুদ্ধানন্দ মহাথেরকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়। ওইদিনই এ ব্যাপারে সবুজবাগ থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে সেখানে নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও জোরদার করা হয়। মতবিনিময়কালে মোহাম্মদ নাসিম আরও বলেন, বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার জন্যই এই ধরনের উড়ো চিঠি পাঠিয়ে ধর্মগুরুকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। জামায়াত-শিবির এই ধরনের কাজ করছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে যখন শান্তি প্রতিষ্ঠা করেছেন। দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে, একাত্তরের ঘাতকদের বিচারের রায় কার্যকর হচ্ছে- তখন বিএনপি-জামায়াত দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য নানা ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। সেই ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে ধ্বংস করার জন্য একটি মহল নানা ষড়যন্ত্র ও অপতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।

ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলকে এই অপশক্তির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, গুপ্তহত্যা প্রতিরোধে সারাদেশের সকল উপাসনালয়ে স্থানীয় জনগণ ও জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে। বৌদ্ধমন্দিরের নিরাপত্তাসহ সারাদেশের সকল মঠ, মন্দির, মসজিদ সব জায়াগায় সরকার সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। খুনিদের চিহ্নিত করে অবশ্যই গ্রেফতার করা হচ্ছে এবং বিচার করা হবে।

মহাবিহারের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও পুলিশের সহযোগিতায় সন্তুষ্টি প্রকাশ করে ১৪ দলের নেতারা বলেন, পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যথেষ্ট তৎপর রয়েছে। মহাবিহারের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এখন ২৪ ঘণ্টা পালা করে পুলিশ সদস্যরা পাহারা দিচ্ছেন। স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং আওয়ামী লীগসহ ১৪ দলের নেতাকর্মীরা সজাগ ও সতর্ক আছেন। আপনারা সব সময় মনে রাখবেন পুরো অসাম্প্রদায়িক শক্তিই আপনাদের পাশে আছে এবং থাকবে।

পরিদর্শনকালে মোহাম্মদ নাসিম বৌদ্ধ মহাবিহারের বিভিন্ন স্থান ঘুরে ঘুরে দেখেন এবং সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দেন। বাসাবো ধর্মরাজিক বৌদ্ধ মহাবিহারের প্রধান শুদ্ধানন্দ মহাথের স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে কাছে পেয়ে বলেন, বিপদের দিন আপনাদের কাছে পেয়েছি। এ জন্য সবাইকে ধন্যবাদ।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও আইপিইউ প্রেসিডেন্ট সাবের হোসেন চৌধুরী, আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক এ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস এমপি, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়–য়া, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা এমপি, জাসদের (একাংশ) সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতার এমপি, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের আহ্বায়ক ডাঃ ওয়াজেদুল ইসলাম খান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।