২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

হায়দরাবাদের সুন্দরী ২ ক্রিড়া ব্যাক্তিত্বের মিল-অমিল


হায়দরাবাদের সুন্দরী ২ ক্রিড়া ব্যাক্তিত্বের মিল-অমিল

অনলাইন ডেস্ক ॥ নিজামের শহরের দুই কন্যা। একজন টেনিস তারকা। অন্যজন সেরা ব্যাডমিন্টনে। তবে সানিয়া মির্জা ও সাইনা নেহওয়াল-এর নাকি তেমন বনিবনা নেই। সত্যিই কি তাই? খোঁজ নিলেন সায়ন আচার্য

এক শহরের দুই সুন্দরী।

এক জনের ঠিকানা হায়দরাবাদের জুবিলি হিলস, অন্য জনের গাচিবাওলি। দূরত্ব মেরেকেটে দশ কিলোমিটার।

এক জন ঊনতিরিশ। অন্য জন ছাব্বিশ। দু’জনেই ভারতের স্পোর্টিং আইকন, তবুও সানিয়া মির্জা আর সাইনা নেহওয়ালের নাকি যত না মিল ততটাই অমিল।

এক শহরে থাকলেও তাঁরা নিজেদের মধ্যে কথা বলেছেন হাতে গোনা কয়েকবার। তাও কোনও প্রোমোশনাল ইভেন্টে। হায়দরাবাদ শহরে তাঁদের বন্ধুরা অনেক চেষ্টা করেও মনে করতে পারছেন না আদৌ একে অপরকে কখনও ফোন করেছেন কি না! ডিনার ডেট কিংবা হোয়াটস অ্যাপ? নৈব নৈব চ।

যদিও ক্রীড়া মহলের পরিচিত গুঞ্জন, নিজেদের মধ্যে ঠান্ডা লড়াই চলে দুই তরুণীর। অথচ তাঁদের মধ্যে প্রচুর মিল, এবং দূরত্বটা বজায় রাখা সে কারণেই।

সানিয়া আজ উইম্বলডন তো কাল প্যারিস। সাইনারও প্যাকড শিডিউল। কখনও সুপার সিরিজ তো কখনও জাপান ওপেন। বিশ্বের যেখানেই থাকুন, সানিয়ার ছায়াসঙ্গী মা নাসিমা। সাইনার তেমনই মা উষারানি।

টেনিস কোর্টের বাইরে সানিয়ার লেটেস্ট ফ্যাশন স্টাইল যদি আলোচনার বিষয় হয়, সাইনার গ্ল্যামার দুনিয়ায় উত্তরণ নিয়েও ট্যুইটারে ঝ়ড় নেহাত কম ওঠে না।

আনন্দplus-এর প্রশ্নের উত্তরে সানিয়ার সঙ্গে তুলনা এড়িয়ে যান সাইনা। ‘‘ও তো খ্যাতনামা টেনিস প্লেয়ার,’’ গোছের উত্তর দিয়ে পাশ কাটিয়ে যান ব্যাডমিন্টন সুন্দরী। আর সানিয়া? উইম্বলডনে ব্যস্ত তিনিও যে তাঁর শহুরে প্রতিদ্বন্দ্বীকে নিয়ে মুখ খুলতে চান না। সে কারণেই বোধহয় তাঁর প্রাক্তন কোচ ও পারিবারিক বন্ধু প্রবীণ ভার্গবও সাইনা নিয়ে কিছু বলতে নারাজ। প্রশ্ন করতেই উত্তরটা দিয়ে দেন এককথায়: ‘‘ওদের মধ্যে কথাবার্তা হয় না।’’

আসলে যতই তাঁরা অস্বীকার করুন তাঁদের পরিচিতরা আড়ালে মানেন যে সাইনা আর সানিয়ার আসলে যত না অমিল তত মিল।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: