২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ঝুঁকিপূর্ণ করতোয়া সেতু ধসে পড়ার শঙ্কা


স্টাফ রিপোর্টার, পঞ্চগড় ॥ সারাদেশের সঙ্গে পঞ্চগড় জেলা তথা বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের মালামাল আনা নেয়ার একমাত্র মাধ্যম পঞ্চগড় শহরের করতোয়া সেতুটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। যে কোন সময় এই সেতুর ওপর দিয়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এমনটিই আশঙ্কা করছে। সড়ক ও জনপথ বিভাগ। এই সেতুর ৭টি জয়েন্টের মধ্যে ৬টির নাজুক অবস্থা। সেতুটিকে রক্ষায় কিছুদিন আগে পঞ্চগড়-বাংলাবান্ধা সড়কের শিংপাড়া নামক স্থানে সড়ক ও জনপথ বিভাগের তত্ত্বাবধানে নিয়ন্ত্রণাধীন ওজন নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র স্থাপন করা হয়। বর্তমান সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এটির উদ্বোধনের পরই রহস্যজনকভাবে ওজন নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রটি বন্ধ হয়ে যায়। এছাড়াও একেবারে শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত করতোয়া সেতুর ওপর চাপ ও যানজট কমাতে বাইপাস সড়ক নির্মাণ সংক্রান্ত প্রকল্পটিও তিন বছর ধরে সংশ্লিষ্ট অধিদফতরে ফাইলবন্দী হয়ে পড়ে রয়েছে। জনগুরুত্বপূর্ণ হলেও প্রকল্পটির অনুমোদন ও বাইপাস সড়ক নির্মাণের ব্যাপারে কর্তৃপক্ষ এখনও কার্যকর কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি।

পঞ্চগড় জেলা সদর ও তেঁতুলিয়া উপজেলার সঙ্গে অন্যান্য উপজেলা এবং সারাদেশের সঙ্গে সড়ক যোগাযোগ রক্ষার জন্য প্রায় ৩০ বছর আগে করতোয়া নদীর ওপর এই সেতুটি নির্মাণ করা হয়। বাইপাস সড়ক না থাকায় প্রতিদিন অতিরিক্ত পাথর, বালুসহ বিভিন্ন পণ্য বোঝাই শত শত ট্রাক ও অন্যান্য যানবাহন চলাচল করার কারণে সেতুটি ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে। প্রতিদিন শত শত ট্রাক অনুমোদিত ওজন সীমার দ্বিগুণ বা তারও বেশি পাথর, বালু, বৈদ্যুতিক পোল, রেল স্লিপারসহ বিভিন্ন ভারি পণ্য পরিবহনের কারণে যে কোন সময় সেতুটি ধসে পড়ার আশঙ্কা করা হয়েছে। আর এই সেতুটি ধসে পড়লে সারাদেশের সঙ্গে পঞ্চগড়ের সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বে।