২২ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

অবসরের চিন্তাই করছেন না স্যালি


অবসরের চিন্তাই করছেন না স্যালি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গত অলিম্পিকে দেশকে স্বর্ণপদক উপহার দিয়েছিলেন। নিজেও গর্বিত হয়েছিলেন স্যালি পিয়ারসন। ২৯ বছর বয়সী এ হার্ডলার এবারও অস্ট্রেলিয়া দলের অন্যতম ভরসা ছিলেন। কিন্তু আসন্ন গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে অংশ নেয়া হচ্ছে না তার। হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কারণে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন তিনি। ফলে আগস্টে ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরো অলিম্পিক অন্যতম আলোচিত এবং ফেবারিট একজন এ্যাথলেটকে দেখতে পাবেন না ক্রীড়াপ্রেমীরা। তবে কি এখানেই ক্যারিয়ার থেমে গেল স্যালির? নিজেই নাকচ করে দিলেন এমন কথা। জানালেন এখন ২০১৮ সালের কমনওয়েলথ গেমস নিয়েই ভাববেন, অবসরের বিষয়ে নয়।

সম্প্রতি বছরগুলোতে বারবারই ইনজুরি সমস্যায় ভুগেছেন স্যালি। ২০১২ সালের লন্ডন অলিম্পিকে তিনি ১০০ মিটার হার্ডলসে স্বর্ণ জিতেছিলেন। এবার রিও অলিম্পিকের জন্য নিজেকে পুরোপুরি ফিট করে তোলার জন্য অস্ট্রেলিয়ার গোল্ড কোস্টে ফিটনেস নিয়ে কাজ করার জন্য গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু অনুশীলনের সময় তিনি হ্যামস্ট্রিংয়ে তীব্র সমস্যা অনুভব করেন। পরে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে দেখা গেছে টেন্ডনে সমস্যা হয়েছে। যেহেতু তিনি তার সর্বোচ্চটা দিতে পারবেন না রিও অলিম্পিক আসতে আসতে, সে কারণে বাধ্য হয়েছেন নাম প্রত্যাহার করে নিতে। তবে কব্জির যে সমস্যায় পড়েছিলেন গত জুনে এবং পায়ের পাতার সমস্যা কাটিয়ে উঠেছিলেন এ বছরের শুরুতেই। এতকিছুর পরও তিনি কোনভাবেই অবসরের কথা ভাবছেন না বলে জানিয়েছেন। এ বিষয়ে স্যালি বলেন, ‘আমার ইনজুরি হয়েছে শুধু সেই কারণে আমি সবকিছু ছেড়ে দিতে চাইছি না। কোন খেলায়, বিশ্বের কোন ক্রীড়ায় কেউ নেমে ইনজুরিবিহীন থাকতে পারে না, ইনজুরিতে না পড়ে শেষ করতে পারে না এবং হতাশার সময় ছাড়াও থাকতে পারে না।’ এসব কারণেই নিজের বর্তমান অবস্থা নিয়ে তেমন আক্ষেপ নেই এ তারকা হার্ডলারের। তিনি মনে করেন সবকিছু পেছনে ফেলে বেশ ভালভাবেই ফিরে আসতে পারবেন। স্যালি বলেন, ‘এখন আমার খারাপ সময় যাচ্ছে। বেশ কয়েক বছর ধরেই আমি ইনজুরি সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: