১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৭ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

শেষ আটে পর্তুগালের মুখোমুখি পোল্যান্ড


শেষ আটে পর্তুগালের মুখোমুখি পোল্যান্ড

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইউরো চাম্পিয়নশিপের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে পর্তুগাল ও পোল্যান্ড। আজ রাতে ফ্রান্সের মার্শেইতে অনুষ্ঠিত হবে খেলাটি। ম্যাচটি জিতে সেমিফাইনালে খেলার স্বপ্ন বুনছে দু’দলই।

ম্যাচটি নিয়ে যতটা না আলোচনা, তার চেয়ে বেশি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে আছেন দু’দলের দুই তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো ও রবার্ট লেভানডোস্কি। ইউরোপিয়ান ফুটবলে এ দু’জন নিয়মিতই জাদু দেখান। চলমান আসরে রোনাল্ডোর পারফর্মেন্স মন্দ নয়। তবে এখনও বেয়ার্ন মিউনিখের ফর্ম দেখাতে পারেননি লেভানডোস্কি। তাহলে কি আজ রাতেই জাদু দেখাবেন পোলিশ তারকা? অন্যদিকে প্রি-কোয়ার্টারে তেমন আলো ছড়াতে না পারলেও এই ম্যাচে ভাল করতে মুখিয়ে আছেন পর্তুগীজ অধিনায়ক।

শেষ ষোলোর ম্যাচে টাইব্রেকারে সুইজার‌্যান্ডকে ৫-৪ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টারে উঠে এসেছে পোল্যান্ড। নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময়ের ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র ছিল। অন্যদিকে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে অনেকটা ভাগ্যক্রমে ১-০ গোলের জয় পেয়ে সেরা আটে এসেছে পর্তুগাল। দু’দলই ভাগ্যকে সঙ্গী করে কোয়ার্টার ফাইনালে। তবে পর্তুগাল সেমিফাইনালে খেলতে আশাবাদী। দলটির ডিফেন্ডার জোশে ফন্টে বলেন, আমরা জয় ছাড়া কিছুই ভাবছি না। আমাদের দলে আছে বিশ্বের সেরা ফুটবলার রোনাল্ডো। ন্যানি, কাসেরামা, মারিওয়ারও দুর্দান্ত। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে শেষ ষোলোতে পর্তুগালের খেলায় অনেকেই সমালোচনা করছেন। তবে এসবকে পাত্তা দিচ্ছেন না ফন্টে। তিনি বলেন, আমরা যদি খারাপ খেলে জিতি তাহলে কি সমস্যা আছে?

সেমিফাইনালে খেলতে চায় পোলিশরাও। তারা সমীহও করছে পর্তুগীজদের। দলটির গোলরক্ষক বলেন, পর্তুগাল অসাধারণ একটি দল। তাদের শুধু রোনাল্ডোই না, আরও অনেক ভাল ফুটবলার আছে। রোনাল্ডো এখনও তার সেরাটা খেলেনি। আমরা চাইব সে এভাবেই থাকুক। আর আমরা সেমিতে খেলার লক্ষ্যেই মাঠে নামব। দু’দলের মুখোমুখি লড়াইয়েও দেখা যাচ্ছে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের আভাস। এ পর্যন্ত পোল্যান্ড ও পর্তুগাল মুখোমুখি হয়েছে ১০ বার। এতে পর্তুগালের ৪ জয়ের বিপরীতে পোল্যান্ডের জয় ৩টিতে। বাকি ৩ ম্যাচ ড্র হয়। অবশ্য ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে বেশ এগিয়ে পর্তুগাল। তাদের অবস্থান ৮ নম্বরে। পক্ষান্তরে পোলিশদের অবস্থান ২৭তম। তবে শেষ আটের লড়াইয়ে এসব পরিসংখ্যান কোন কাজে আসবে না বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সুযোগ যারা কাজে লাগাতে পারবে তারাই জিতবে বলে অভিমত তাদের।

২০০৪ সালের আসরে ফাইনালে গেলেও গ্রীসের কাছে অপ্রত্যাশিতভাবে হেরেছিল পর্তুগাল। ওই কষ্ট এখনও কাদায় পর্তুগীজদের। ওই আসরে দুর্দান্ত খেলেছিলেন রোনাল্ডো। ২০১২ সালের আসরেও দুর্দান্ত খেলে সেমিতে উঠে এসেছিল পর্তুগাল। কিন্তু স্পেনের কাছে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয়েছিল। এবার তাই সতর্ক হয়েই মাঠে নামছেন রোনাল্ডো, ন্যানিরা। গতবার মূলত পর্তুগালের স্বপ্নভঙ্গ হয় ক্রসবারে! দলটির বেশ কয়েকটি আক্রমণ প্রতিহত হয়েছিল পোস্টে লেগে।

ইউরোতে পর্তুগালের সেরা সাফল্য ২০০৪ আসরে ফাইনাল খেলা। সেবার গ্রীসের কাছে হেরে শিরোপা স্বপ্ন বিসর্জন দিয়েছিলেন রোনাল্ডো, ফিগোরা। আট বছর বাদে ২০১২ আসরে রোনাল্ডোর দুর্দান্ত ফর্ম ও দলীয় নৈপুণ্যের কারণে শিরোপা খরা ঘোচানোর স্বপ্ন বুনেছিল পর্তুগাল। সেমিফাইনালে এ লক্ষ্যে অনেকদূর পৌঁছেও গিয়েছিল তারা। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। এর আগে পর্তুগালের সেমিফাইনাল থেকে ইউরো মিশন শেষ হয়েছিল ১৯৮৪ ও ২০০০ সালেও। গতবারসহ তৃতীয়বার সেরা চার থেকে বিদায় নিয়েছে ইউরোপের ব্রাজিলরা। এবার ফরম্যাট বলছে, ফাইনালের পথ অনেকটাই পরিষ্কার রোনাল্ডোদের জন্য। শেষ আটে পোলিশদের হারাতে পারলে সেমিতে প্রতিপক্ষ হিসেবে আসবে ওয়েলস বা বেলজিয়ামের কোন একটি। এ কারণে এক যুগ পর আরেকবার ফাইনালের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছে পর্তুগাল। তবে এর আগে আজ পোল্যান্ডের বিপক্ষে সেমি নিশ্চিত করার মিশনে নামছে রোনাল্ডোবাহিনী।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: