মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৭ আশ্বিন ১৪২৪, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

গুম খুনের সঙ্গে র‌্যাব-পুলিশ জড়িত ॥ খালেদা জিয়া

প্রকাশিত : ৩০ জুন ২০১৬

স্টাফ রিপোর্টার ॥ গুম-খুনের সঙ্গে র‌্যাব ও পুলিশ জড়িত বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। মঙ্গলবার রাজধানীর গুলশানের লংবিচ হোটেলে বিএনপির বিগত আন্দোলন-সংগ্রামে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ইফতার করতে গিয়ে তিনি এ অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, দেশে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা ফিরে এলে সকল গুম-খুনের বিচার হবে। গুম-খুনের সঙ্গে জড়িতদের ক্ষমা করা হবে না।

ইফতারের আগে গুম-খুন হওয়া পরিবারের ক’জন সদস্য বক্তব্য রাখেন। এ সময় প্রিয়জনদের ফিরে পেতে তাদের কান্নায় সেখানখার পরিবেশ ভারি হয়ে উঠে। তারা ঈদের আগে গুম-খুন হওয়া স্বজনদের ফিরিয়ে দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। বক্তব্যে অংশ নেন নিখোঁজ বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহমিনা রুশদীর লুনাসহ অন্যান্য। অনুষ্ঠানে গুম-খুন হওয়া ৪০টি পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

খালেদা জিয়া বলেন, দেশে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা ফিরিয়ে আনতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। আন্দোলন করে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে। অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করে দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে। তাহলেই দেশে গুম-খুন বন্ধ হবে। আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হবে। আর তখন দেশে গণতান্ত্রিক অবস্থা ফিরে আসলে যারা গুম হয়েছে আমরা তাদের অবশ্যই খুঁজে বের করার চেষ্টা করব।

খালেদা জিয়া বলেন, আমরা গুম হওয়াদের হয়ত ফিরে পেতে না পারি, কিন্তু এসব ঘটনায় জড়িতদের বিচার হলেও কিছুটা শান্তি পাব। আমরা এই আশায় থাকব। দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে খালেদা জিয়া বলেন, আসুন, আমরা আল্লাহর কাছে দোয়া করি, তারা (গুম হওয়ারা) যেখানেই আছে যেন ভাল থাকেন, সুস্থ থাকেন। আল্লাহ যেন তাদের সহায় হোন।

এ সময় খালেদা জিয়ার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, দলের সিনিয়র নেতা চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, সেলিমা রহমান, এ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, ডাঃ জাহিদ হোসেন, এ্যাডভোকেট আহমেদ আজম খান, আবদুল আউয়াল মিন্টু, যুগ্ম মহাসচিব, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, দলের নেতা সানাউল্লাহ মিয়া, শিরিন সুলতানা প্রমুখ।

গুম-খুনের শিকার বিএনপি নেতাকর্মীদের পরিবারকে ঈদ উপহার দেয়া হচ্ছে ॥ বিগত দিনে সারাদেশে বিএনপির যেসব নেতাকর্মী গুম-খুনের শিকার হয়েছেন এবার ঈদে তাদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি হাইকমান্ড। এরই অংশ হিসেবে তাদের পরিবারের সদস্যদের মাধ্যে ঈদ উপহার দেয়া হচ্ছে। ২৪ জুন থেকে এসকল পরিবারের কাছে খালেদা জিয়ার ঈদ শুভেচ্ছা কার্ডসহ উপহার সমগ্রী পৌঁছে দেয়া শুরু হয়েছে।

উপহার সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে একটি জায়নামাজ, তাসবীহ, আতর আর ঈদের জন্য বিস্কুট, সেমাই, দুধ, চিনি আর চকোলেট। সারাদেশের প্রায় আড়াই শ’ নেতাকর্মীর পরিবারের জন্য এই উপহার সামগ্রী পাঠানো হয়েছে।

প্রকাশিত : ৩০ জুন ২০১৬

৩০/০৬/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: