২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বিরল দৃষ্টান্ত ॥ ঘরে বসে ভাতা পেলেন দুস্থ নারী


সমুদ্র হক ॥ ঈদের টানা বন্ধের প্রভাবে সরকারের নানামুখী ভাতা নিয়ে যখন দুস্থরা চিন্তিত তখন সাপ্তাহিক ছুটির দিনেও বাড়ির দোরগোড়ায় গিয়ে সেই ভাতা হাতে তুলে দেয়া হচ্ছে। সম্পূর্ণ নিজ দায়িত্বে এই বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন সোনালী ব্যাংক বগুড়া কলেজ রোড শাখার ব্যবস্থাপক এ কে এম আব্দুল হান্নান। মানুষের কল্যাণে যে দৃষ্টান্ত অন্যরাও অনুসরণ করতে পারেন। বগুড়া সদরের ৮ ইউনিয়নের অন্তত ৫০ গ্রামের ৬শ’ ১৬ দুস্থ নারীকে ঈদের আগে মাতৃকালীন ভাতা নেয়ার জন্য এখন আর নবজাতক ও শিশু সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে শহরের ব্যাংকে গিয়ে দিনমান অপেক্ষা করতে হয় না। তাদের এই ভোগান্তি দূর করেছেন তিনি। ঘরে বসেই তারা ভাতা পাচ্ছেন। ঈদের এই সময়টায় সোনালী ব্যাংক বগুড়া কলেজ রোড শাখাকে সীমিত লোকবল নিয়ে নিয়মিত ব্যাংকিং কার্যক্রম ছাড়াও বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, মাতৃকালীন ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা দিতে হয়। কখনও শিক্ষকদের বেতন দিতে হয়। সবচেয়ে বেশি কষ্টের মধ্যে পড়েন সন্তান প্রসবের পর দুস্থ মহিলারা। ছয় মাস থেকে দেড় বছর বয়সী সন্তানকে কোলে নিয়ে ব্যাংকে যেতে হয়। পাস বই জমা দেয়ার পর থাকতে হয় অপেক্ষায়। ব্যবস্থাপক আব্দুল হান্নান ব্যাংকে অপেক্ষারত এই নারীদের দুর্দশা ও ভোগান্তি দেখে সিদ্ধান্ত নেন ছুটির দিন শনিবার তিনি নিজেই টাকা নিয়ে গ্রামে গিয়ে ভাতা প্রদান করবেন।

ব্যাংকের চৌকস অফিসার ও কর্মচারীকে সঙ্গে নিয়ে তিনি রওনা দেন ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে। চেয়ারম্যানের কাছে আগেই সহযোগিতা চাওয়া হয়। সহযোগিতা দেয় গ্রামের সাধারণ মানুষ। শনিবার সকালে ইউনিয়ন পরিষদের নির্ধারণ করা স্থানে দুস্থ মাতাদের যেতে বলা হয়। চারধারে গ্রাম পুলিশের পাহারায় দুস্থ নারীরা শৃঙ্খলার মধ্যে সরকারের দেয় ভাতা নিয়ে যান।

কুড়িগ্রামে শিক্ষক লাঞ্ছিতের প্রতিবাদে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম ॥ শহরের মজিদা আদর্শ কলেজের শিক্ষক মামুন সেলিমকে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। বুধবার দুপুরে প্রেসক্লাবের সামনে কুড়িগ্রাম-চিলমারী সড়কে ঘন্টাব্যাপি মানববন্ধন করা হয়। সচেতন ছাত্র, শিক্ষক ও অভিভাবকের ব্যানারে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জেলা অনার্স মাস্টার্স শিক্ষক পরিষদের সভাপতি আলী আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশীদ, ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক আতাউর রহমান মিন্টু, মামুন সেলিম, সহকারী অধ্যাপক আয়নাল হক প্রমুখ।

পরে কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাব হলরুমে সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক আতাউর রহমান মিন্টু।

জবর দখলের প্রতিবাদ

কুড়িগ্রামের উলিপুরে প্রভাব খাটিয়ে জমি জবর দখলের চেষ্টা ও হয়রানিমূলক মামলা দায়েরের প্রতিবাদে এক অতিরিক্ত জেলা জজের বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছেন হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষজন।

বুধবার দুপুরে উলিপুর উপজেলা পরিষদের সামনে এই কর্মসূচী পালিত হয়। উলিপুর পৌর এলাকার রামদাস ধনীরামের রায়পাড়া গ্রামের হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষজন মানববন্ধনে অভিযোগ করেন, ওই গ্রামের বাসিন্দা কামরুন নাহার কাকলী, যিনি নারায়ণগঞ্জ জজ কোর্টে অতিরিক্ত জেলা জজ হিসেবে কর্মরত আছেন, তিনি ও তার স্বামী ব্যারিস্টার মমিনুল ওই গ্রামের মিনতি রানী রায়ের জমি স্বাক্ষর জালিয়াতি করে আত্মসাতের চেষ্টা করেন।