২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

রাতের আঁধারে দখল হচ্ছে কালিদাস


স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ রাতের আঁধারে বালু ভরাট করে দখল করে নেয়া হচ্ছে মুন্সীগঞ্জ শহর ঘেঁষা কালীদাস নদীর তীর। শহরের উত্তর ইসলামপুরের ফরাজি বাড়ি ঘাটের তীর ভরাট করে দখল করছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। উত্তর প্রান্তের হাটলক্ষ্মীগঞ্জ এলাকা হয়ে শহরের বুকচিরে দক্ষিণ প্রান্তের রমজানবেগ, চরমশুরা গ্রাম হয়ে মেঘনা নদীতে মিলিত কালীদাস এক সময় দূর-দূরান্তে যাতায়াতের উপযুক্ত নদী পথ ছিল। কালে কালে দখলদারদের কবলে পড়ে নদীটি এখন খালে পরিণত হয়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, উত্তর ইসলামপুরের ফরাজী বাড়ির ঘাট এলাকার প্রভাবশালী সেন্টু হাজী ও তার ছোট ভাই সেলেম হাজী নদীর পাড়ে বাঁশের বেড়া দিয়ে ড্রেজারের মাধ্যমে বালু ফেলে ভরাট করে নিচ্ছে নদী তীরের বিশাল অংশ। রাতের আঁধারে বালু ফেলে ভরাট করে নিচ্ছে নদীর তীর। এছাড়া নদীটির বিভিন্ন স্থানে অবৈধ দখলদার ভরাট করে মালিকানায় পরিণত করছেন নদী তীর।

এ ব্যাপারে সেন্টু মিয়া জানান, এটা আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি। তাই বালু দিয়ে ভরাট করতেছি। আগে এখানে আমাদের পৈত্রিক জমি ছিল। এক সময় নদীতে ভেঙ্গে তা নদীগর্ভে বিলীন হয়। এখন চর পড়েছে তাই আমরা আস্তে আস্তে বালু দিয়ে ভরাট করতেছি ।

শৈলকুপা পৌর মেয়রকে হত্যার হুমকি

আনসারুল্লাহ বাংলাটিম

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝিনাইদহ, ২৭ জুন ॥ শৈলকুপা পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী আশরফুল আজমকে আনসারুল্লাহ বাংলা টিম পরিচয়ে মোবাইল ফোনে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে মেয়র রবিবার রাতে শৈলকুপা থানায় একটি জিডি করেছেন।

শৈলকুপা পৌরসভা মেয়র কাজী আশরাফুল আজম জানান, রবিবার সকালে হুমকিদাতা মোবাইল ফোনে বলে, ‘পাকিস্তানের করাচী থেকে বলছি’। নিজেকে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের প্রধান পরিচয় দিয়ে বলে, ‘আপনিও মুসলমান, আমিও মুসলমান’। ‘আপনিও নামাজ পড়েন, আমিও পড়ি’। ‘বাংলাদেশকে ইসলামী রাষ্ট্র বানাতে চায়’। ‘আপনি আওয়ামী লীগ করেন’। ‘পার্টির পক্ষ থেকে আপনার হত্যার আদেশ হয়েছে’। ‘কেউ রক্ষা করতে পারবে না’। উত্তরে পৌর মেয়র বলেন, মৃত্যু আল্লাহ’র হাতে। এ কথা বলে মেয়র লাইন কেটে দেন।