১৭ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

আড়াইহাজারে বালু মহাল নিয়ে আওয়ামীলীগের দু’টি গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ


নিজস্ব সংবাদদাতা, নারায়ণগঞ্জ ॥ নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে মেঘনা নদীতে বালু মহাল অবৈধ দখল নিয়ে আওয়ামী লীগের দু’টি গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ ও ঘন্টাব্যাপী গুলিবিনিময়ের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের ২০ জন গুলিবিদ্ধসহ কমপক্ষে ২৫ জন আহত হয়েছে। গুলিবিদ্ধসহ গুরুতর আহতদেরকে ঢাকা ও কুমিল্লার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার সকাল ১০টায় উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের কদমীরচর এলাকায়।

পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দা সূত্রে জানা গেছে, সোমবার সকাল দশটার দিকে আড়াইহাজার উপজেলার কদমীরচর এলাকার বালু সন্ত্রাসী জয়নাল তার লোকজন নিয়ে মেঘনা নদীতে ড্রেজার বসিয়ে বালু উত্তোলন করতে থাকে। এ খবর পেয়ে অপর বালু সন্ত্রাসী আবদুস সাত্তার তার সহযোগী শতাধিক লোকজন অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ট্রলারযোগে মেঘনা নদীতে ড্রেজারে হামলা চালিয়ে ড্রেজারটি দখল করার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে সাত্তার ও জয়নাল গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে গোলাগুলি শুরু হয়। ঘন্টাব্যাপী এ সংঘর্ষ ও গোলাগুলিতে উভয়পক্ষের অন্তত ২৫ জন আহত হয়। এদের মধ্যে ২০ গুলিবিদ্ধ হলে ঢাকা, কুমিল্লার হোমনা ও বাঞ্ছারামপুরসহ বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে জয়নাল গ্রুপ পিছু হটলে সাত্তার গ্রুপের সন্ত্রাসীরা বালু মহালের ড্রেজারটিতে অগ্নিসংযোগ করে পুড়িয়ে দেয়।

সংঘর্ষে সাত্তার গ্রুপের ১০ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে বলে তারা জানান। এদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় গুরুতর আহতরা হলো- হালিম, আক্তার, আঃ সাত্তার, জয়নাল, দাউদ, মনির মেম্বার ও আলম। তাদের মধ্যে হালিমের চোখে ও আক্তারের নি¤œাঙ্গে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে সাত্তার পক্ষের লোকজন জানান।

অপর পক্ষে জয়নাল গ্রুপের জয়নাল, খলিল, জলিল, রুবেল, ইয়াছিন গুলিবিদ্ধ হয়ে মারাত্মক আহত হয়েছে বলে জয়নাল জানান। তাদের মধ্যে খলিল ও জলিলের অবস্থা আশংকাজনক। তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকীদের চিকিৎসার জন্য কুমিল্লার হোমনা, বাঞ্ছারামপুরসহ আশপাশের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

কালাপাহাড়িয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এএসআই আবু হান্নান জানান, দু’পক্ষের মধ্যে গুলি বিনিময়ের সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে কোন অস্ত্র উদ্ধার ও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

আড়াইহাজার থানার ওসি সাখাওয়াত হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, মেঘনা নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন নিয়ে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে আধঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষের ঘটনায় ৮-১০ জন আহত হয়েছে। গুলিবিদ্ধ হয়েছি কিনা তা খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। বিকেলে সাড়ে ৫টা পর্যন্ত এ ঘটনায় কোন পক্ষই থানায় অভিযোগ দেয়নি বলে তিনি জানান।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: