১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

মুন্সীগঞ্জে শ্বশুর বাড়ির নির্যাতনে গৃহবধুর মৃত্যু


স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে শ্বশুর বাড়ির নির্যাতনে শিল্পী বেগম নামে এক গৃহ বধু মারা রবিবার মারা গেছে। এ ঘটনায় রবিবার রাতে পুলিশ নিহতের দেবর আওলাদ হোসেন (৪০) ও ননদ সোনিয়া আক্তারকে (২৬) আটক করে সোমবার মুন্সীগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দশ বছর আগে শ্যামসিদ্ধি গ্রামের বাছের খানের ছেলে মোশারফ খানের সাথে দামলা গ্রামের মৃত আবুল হাশেমের মেয়ে শিল্পি বেগমের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে আট বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। ৪ বছর আগে মাশারফ খান দুবাই চলে যায়। এরপর থেকে গৃহবধু শিল্পির উপর শ্বশুর বাড়ির লোকজন নির্যাতন চালিয়ে আসছে।

শিল্পির বোন সীমা বেগম জানান, নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে তার বোন শিল্পী মাঝে মাঝেই বাড়ীতে চলে আসতো। গত ২১ জুন দুপুরে শিল্পীর সাথে তার শ্বশুর বাড়ির লোকজনের ঝগড়া বাধে। এ সময় শিল্পীর শাশুড়ি তাসলিমা বেগম, শ্বশুর বাছের খান, দেবর আওলাদ হোসেন ও রমজান, ননদ সোনিয়া আক্তার, জা সাহানা বেগম মিলে শিল্পীকে বেদম প্রহার করে। এতে শিল্পী জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। পরে প্রতিবেশীরা তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে প্রথমে মিটফোর্ড হাসপাতালে ও পরে ন্যাশনাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসারত অবস্থায় রবিবার শিল্পী মারা যায়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্তের পর রবিবার রাতেই শিল্পীকে দামলা কবরস্থানে দাফন করা হয়।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে শ্রীনগর থানার ওসি সাহিদুর রহমান জানান, এ ঘটনায় নিহত শিল্পীর বোন সীমা বেগম বাদী হয়ে রবিবার রাতে ছয় জনকে আসামী করে শ্রীনগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। দু’জনকে গ্রেপ্তার করে সোমবার আদালতে পাঠানো হয়েছে। অপর আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: