মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২১ আগস্ট ২০১৭, ৬ ভাদ্র ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বাংলাদেশী শ্রোতাদের টার্গেট করে ভারতের বিশেষ বেতার সার্ভিস

প্রকাশিত : ২৬ জুন ২০১৬

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শুধু বাংলাদেশের শ্রোতাদের টার্গেট করে ভারতের রাষ্ট্রীয় বেতার সংস্থা আকাশবাণী মৈত্রী নামে নতুন একটি বেতার সার্ভিস চালু করতে যাচ্ছে। এই পদক্ষেপের অংশ হিসেবে পশ্চিমবঙ্গের হুগলির চুঁচুড়ায় এক হাজার কিলোওয়াট শক্তিসম্পন্ন একটি ট্রান্সমিটারও বসানো হয়েছে। জানা গেছে, এ বেতার চ্যানেলে যেমন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান থাকবে তেমনি একটা বড় অংশজুড়ে থাকবে সংবাদ ও বিশ্লেষণধর্মী অনুষ্ঠান। সংবাদ বুলেটিন ছাড়াও বিশ্ব সংবাদ ও উপমহাদেশের সংবাদ নিয়ে থাকবে আলাদা আলাদা অনুষ্ঠান।

বিবিসি বাংলাতে শনিবার সন্ধ্যায় প্রচারিত এ বিষয়ক এক প্রতিবেদনে ভারতের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার সংস্থা প্রসার ভারতীর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জহর সরকার জানিয়েছেন, এই সম্প্রচারের লক্ষ্য বাংলাদেশের মানুষের সঙ্গে বোঝাপাড়া বাড়ানো। তবে বিশ্লেষকরা মনে করছেন, বাংলাদেশের মানুষের একাংশের মধ্যে যে ভারতবিরোধী মনোভাব রয়েছে তা নিয়ন্ত্রণ করারই একটি কূটনৈতিক প্রয়াস এই বেতার পরিষেবা।

কেন বাংলাদেশের শ্রোতাদের জন্য বড় আকারে নতুন এই বেতার চ্যানেল চালু করা হলোÑএ বিষয়ে জহর সরকার জানান, দুই-তৃতীয়াংশ বাংলা ওই দিকে আর এক-তৃতীয়াংশ হচ্ছে এদিকে। ওই দুই-তৃতীয়াংশের জন্য যেটা বানানো হচ্ছে সেখানে তাদের বাদ দিয়ে শুধু শ্রোতা হিসেবে বিবেচনার উর্ধে রাখা হয়েছে। সেজন্য এই বেতার চ্যানেলের অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের কিছু কিছ শিল্পীকেও রাখা হবে। তাতে উভয় অংশের মধ্যে বোঝাপড়াটা শক্ত হবে।

একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধকালে দূরদর্শনের জনপ্রিয় প্রযোজক উপেন তরফদার (বর্তমানে অবসরপ্রাপ্ত) এ প্রসঙ্গে বলেন, দুই দেশেরই কিছু অশুভ শক্তি রয়েছে যারা নিজেদের স্বার্থেই চায় না যে ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রীবন্ধন দৃঢ় হোক। আমার মনে হয় এই নতুন চ্যানেলের মাধ্যমে আদান-প্রদান বাড়বে, ভুল বোঝাবুঝি দূর হবে, অশুভ শক্তি পরাজিত হবে।

রাজনৈতিক ভাষ্যকার সব্যসাচী বসু রায় চৌধুরী মনে করেন, ভারত সরকার এটা বোঝাতে চাইছে যে তারা বাংলাদেশের বৈরী নয়। তারা সব ক্ষেত্রেই বাংলাদেশ সরকার, বিশেষ করে হাসিনা সরকারকে সব ধরনের সাহায্য করতে প্রস্তুত।

প্রকাশিত : ২৬ জুন ২০১৬

২৬/০৬/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: