২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

কৃষি পণ্যের রফতানি আয় ৫৩ কোটি ডলার


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ২০১৫-১৬ অর্থবছরের জুলাই- মে মেয়াদে কৃষিপণ্য রফতানিতে আয় হয়েছে ৫৩ কোটি ৬৭ লাখ ৪০ হাজার মার্কিন ডলার। যা এই সময়ের লক্ষ্যমাত্রার অনেকটাই পূরণ করতে সক্ষম হয়েছে। তবে গত ২০১৪-১৫ অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় এই খাতের রফতানি আয় শূন্য দশমিক ৮৬ শতাংশ কমেছে।

বাংলাদেশ রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) মে মাসে প্রকাশিত হালনাগাদ প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে কৃষিপণ্য রফতানি লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৫৯ কোটি ৫০ লাখ মার্কিন ডলার। এর মধ্যে প্রথম ১১ মাসে ৫৩ কোটি ৬৭ লাখ ৬০ হাজার মার্কিন ডলার আয়ের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও এই সময়ে আয় হয়েছে ৫৩ কোটি ৬৭ লাখ ৪০ হাজার মার্কিন ডলার। একইসঙ্গে গত অর্থবছরের জুলাই-মে মেয়াদের তুলনায় চলতি অর্থবছরের এই সময়ে কৃষিপণ্য রফতানিতে বৈদেশিক মুদ্রা আয় শূন্য দশমিক ৮৬ শতাংশ কমেছে। ২০১৪-১৫ অর্থবছরে কৃষিপণ্য রফতানিতে আয় হয়েছিল ৫৮ কোটি ৬০ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার। এর মধ্যে অর্থবছরের প্রথম ১১ মাসে আয় হয়েছিল ৫৪ কোটি ১৪ লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলার।

চলতি ২০১৫-১৬ অর্থবছরের প্রথম ১১ মাসে চা রফতানিতে আয় হয়েছে ১৫ লাখ ৯০ হাজার মার্কিন ডলার; যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১১ দশমিক ৬৭ শতাংশ কম। গত অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় এ খাতের রফতানি আয় ৩৮ দশমিক ৬১ শতাংশ কমেছে। ২০১৪-১৫ অর্থবছরে চা রফতানিতে আয় হয়েছিল ২৬ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলার। এর মধ্যে প্রথম ১১ মাসে আয় হয়েছিল ২৫ লাখ ৯০ হাজার মার্কিন ডলার।

চলতি অর্থবছরের জুলাই-মে মেয়াদে সবজি রফতানিতে আয় হয়েছে ৯ কোটি ২৪ লাখ ৪০ হাজার মার্কিন ডলার। যা এই সময়ের লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৩ দশমিক ৮৬ শতাংশ বেশি। তবে গত অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ৭ দশমিক ৪৬ শতাংশ কম আয় হয়েছে এই খাতে। আলোচ্য সময়ে ফুলকপি ও বাঁধাকপি রফতানিতে আয় হয়েছে ৪৫ লাখ ৪০ হাজার মার্কি ডলার। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৫৩ দশমিক ৮৩ শতাংশ এবং ২০১৪-১৫ অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ৫৩ দশমিক ৬৯ শতাংশ কম।

চলতি অর্থবছরের প্রথম ১১ মাসে তামাক রফতানিতে আয় হয়েছে ৫ কোটি ৪ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার; যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২৫ দশমিক ৪৪ শতাংশ কম। একইসঙ্গে গত অর্থবছরের প্রথম ১১ মাসের তুলনায় এই খাতের আয় ২১ দশমিক ৪৯ শতাংশ কমেছে। ২০১৪-১৫ অর্থবছরে তামাক রফতানিতে আয় হয়েছিল ৬ কোটি ৮৪ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার। এর মধ্যে প্রথম ১১ মাসে আয় হয়েছিল ৬ কোটি ৪২ লাখ ৬০ হাজার মার্কিন ডলার। চলতি অর্থবছরে এই খাতে রফতানি লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৭ কোটি ৫০ লাখ মার্কিন ডলার।

২০১৫-১৬ অর্থবছরের জুলাই-মে মেয়াদে ফল রফতানিতে আয় হয়েছে এক কোটি ৯৮ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার; যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৪০ দশমিক ৫৩ শতাংশ এবং গত অর্থবছরের তুলনায় ৪৭ দশমিক ৯৫ শতাংশ কম। আলোচ্য সময়ে মসলা জাতীয় পণ্য রফতানি লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল এক কোটি ৮০ লাখ ৪০ হাজার মার্কিন ডলার।