মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৮ জুন ২০১৭, ১৪ আষাঢ় ১৪২৪, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বিপর্যস্ত বরিশালের ছয় জেলায় স্বাস্থ্যসেবা

প্রকাশিত : ২৫ জুন ২০১৬, ০৩:৩৬ পি. এম.

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ বরিশালসহ দক্ষিণাঞ্চলের ছয় জেলার হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসক-সংকট প্রকট আকার ধারণ করেছে। চিকিৎসকের ১ হাজার ৮৫টি পদের মধ্যে ৫৫৯টিই শুন্য। চিকিৎসক সংকটের কারণে চিকিৎসাসেবার অবস্থা নাজুক। জনবল দেওয়ার জন্য বারবার সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে আবেদন করা সত্বেও শুন্যপদ পূরণে উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। এছাড়া যারা দায়িত্ব পালন করছেন তারাও শহরমুখী হওয়ার চেষ্টা করছেন। ফলে চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন সাধারণ মানুষ।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ ও জেনারেল হাসপাতাল ব্যতিত বিভাগের ছয় জেলায় বিভিন্ন পর্যায়ের ৩৮১টি হাসপাতালে ১ হাজার ৮৫ জন চিকিৎসকের পদ রয়েছে। বর্তমানে ওই পদের বিপরীতে চিকিৎসক রয়েছেন মাত্র ৫২৩ জন। অর্থাৎ বিভাগে অর্ধেকের বেশি চিকিৎসকের পদ শুন্য। জেলাভিত্তিক চিকিৎসকের মঞ্জুরি পদ এবং শুন্যপদের তালিকায় দেখা গেছে, বরিশালে চিকিৎসকের পদ আছে ২২৩টি। কর্মরত রয়েছেন ১৩৬ জন। শুন্য রয়েছে ৮৭টি পদ। পটুয়াখালীতে ২২৯ জন চিকিৎসকের বিপরীতে কর্মরত আছেন ১০১ জন। শুন্য পদ রয়েছে ১২৮টি। ভোলায় চিকিৎসকের ২’শ পদের বিপরীতে কর্মরত ৯৬ জন। পদ শুন্য আছে ১০৪টি। পিরোজপুরে চিকিৎসকের ১৬৮টি পদের মধ্যে শুন্য ৮১টি। বরগুনায় পদের সংখ্যা ১৬২। এরমধ্যে শুন্য আছে ১১৭টি। ঝালকাঠি জেলায় ১০২টি পদের বিপরীতে ৬০ জন কর্মরত। পদশুন্য ৪২টি।

বরিশাল স্বাস্থ্য বিভাগের সহকারী পরিচালক বাসুদেব কুমার দাস বলেন, বিভাগের সব জেলায় চিকিৎসক সঙ্কট রয়েছে। তবে ভোলা ও বরগুনা জেলায় সংকট প্রকট।

বরিশাল স্বাস্থ্য বিভাগের পরিচালক বিনয় কৃষ্ণ বিশ্বাস বলেন, কখনোই চাহিদা অনুযায়ী চিকিৎসক পাওয়া যায় না। বর্তমানে বরিশাল বিভাগে চিকিৎসকের পদ অর্ধেকের বেশি শুন্য। ফলে চাইলেও যথাযথভাবে চিকিৎসাসেবা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। কেবল সমন্বয় করে সেবা দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। শুন্যপদ পূরণে অব্যাহতভাবে চেষ্টা করে যাচ্ছি। এই অবস্থা জানিয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে একাধিকবার চিঠিও দেয়া হয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

প্রকাশিত : ২৫ জুন ২০১৬, ০৩:৩৬ পি. এম.

২৫/০৬/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: