মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৭ আশ্বিন ১৪২৪, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

অর্থপাচার রোধে একটি স্বতন্ত্র প্রতিষ্ঠান করতে হবে

প্রকাশিত : ২৫ জুন ২০১৬, ০১:৩৬ পি. এম.
অর্থপাচার রোধে একটি স্বতন্ত্র প্রতিষ্ঠান করতে হবে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার।। বাংলাদেশে লোকজন টাকা রাখতে ভয় পায় বলে জানিয়ে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ড. আকবর আলী খান বলেছেন, অর্থপাচার রোধে একটি স্বতন্ত্র প্রতিষ্ঠান গঠন করতে হবে।

আজ শনিবার রাজধানীর ব্র্যাক সেন্টারে ‘ অর্থপাচার : প্রেক্ষিত বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক ডায়ালগে তিনি এসব কথা বলেন। ডায়ালগটির আয়োজন করে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)।

ড. আকবর আলী বলেন, অর্থপাচারের দুটি কারণ থাকতে পারে। একটি হলো উন্নত দেশের দৃষ্টিভঙ্গি আর অন্যটি হলে আইনের শাসনের অভাব। প্রশ্ন হলো কেন অর্থ দেশের বাইরে চলে যাচ্ছে। আমার মনে হয় কর ফাঁকি দিতে এই টাকা পাচার হচ্ছে না। মূলত বাংলাদেশে লোকজন টাকা রাখতে ভয় পায়, করের হার আরো কমানো হলেও পাচার বন্ধ হবে। দেশ থেকে অনেক মানুষ চলে যেতে চায়।

অর্থপাচার রোধে একটি স্বতন্ত্র প্রতিষ্ঠান গঠনের পরামর্শ দিয়ে ড. আকবর আলী খান বলেন, এই স্বতন্ত্র প্রতিষ্ঠান অর্থ মন্ত্রণালয়ের অধীনে থাকবে। এখানে আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্য থেকে শুরু করে ব্যবসায়ী, অর্থনীতিবিদসহ সংশ্লিষ্ট সকলের অংশগ্রহণ থাকতে হবে।

তিনি বলেন, দেশে সর্বত্র সুশানের অভাব রয়েছে। সুশানের অভাব টাকা পাচারের একটি বড় কারণ। দেশ থেকে প্রচুর টাকা অবৈধভাবে বিদেশে চলে যাচ্ছে। এ বিষয়টি খুবই জটিল। এই অর্থপাচার রাতারাতি বন্ধ করা যাবে না।

অর্থপাচার রোধ আমাদের আইনি কাঠামো তৈরি করতে হবে। দুদকের কাজ দুর্নীতি রোধ করা, অপ্রিয় হলেও সত্য তাদের পক্ষে অর্থপাচার রোধ করা অসম্ভব বলে জানান এই অর্থনীতিবিদ।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন সিপিডি এর সম্মানীয় ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. ফরাসউদ্দিন আহমেদ, সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ড. মির্জা আজিজুল ইসলাম, এফবিসিসিআই সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমদ প্রমুখ।

প্রকাশিত : ২৫ জুন ২০১৬, ০১:৩৬ পি. এম.

২৫/০৬/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

জাতীয়



শীর্ষ সংবাদ: