১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

মাগুরায় সংঘর্ষ ॥ নারীসহ আহত সাত


নিজস্ব সংবাদদাতা, মাগুরা, ১৬ মে ॥ সোমবার সকালে সদর উপজেলার চাউলিয়া ইউপির নিশ্চিন্তপুর গ্রামে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে নারীসহ সাতজন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে ২ জনকে মাগুরা সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময় ১০টি বাড়ি ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।

সরে দাঁড়ালেন বিএনপির

মেয়র প্রার্থী

নিজস্ব সংবাদদাতা, নরসিংদী থেকে জানান, ঘোড়াশাল পৌর নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর হোসেন। সোমবার দুপুরে ঘোড়াশালস্থ পলাশ উপজেলা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন। তিনি জানান, প্রতিপক্ষ প্রার্থীর কোন চাপ নেই তার ওপর। দলীয় সমর্থন নিয়ে তিনি নির্বাচনে অংশ নিলেও তার কর্মী সমর্থকরা এখন নির্বাচনী কার্যক্রমে তার পক্ষে অংশ না নেয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেন। এমনকি তার পোস্টার লাগানোর কর্মী খুঁজে পাচ্ছেন না তিনি।

গুরুতর অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর, থেকে জানান, ইউপি নির্বাচনে এক আওয়ামী লীগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে ভয়ভীতি প্রদর্শন ও হুমকি দেয়া এবং পুলিশের এক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আ’লীগ প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগ করেছেন সালথা উপজেলার আটঘর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আলীমুজ্জামান। সোমবার সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ফরিদপুর প্রেসক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। লিখিত অভিযোগে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আলীমুজ্জামান বলেন, আ’লীগ প্রার্থী সহিদুল হাসান খান ওরফে সোহাগ খান নির্বাচনে পরাজয় নিশ্চিত জেনে আমাকে হয়রানি করছে এবং আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার ছড়াচ্ছে। তিনি বলেন, আ’লীগ প্রার্থী আমার কর্মীদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে এবং আমার সমর্থকদের তাকে ভোট দেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করছেন। আ’লীগ প্রার্থী নির্বাচনের দিন ভোট ডাকতি করার হুমকি দিয়ে বলেছেন, ভোট না পেলেও তিনি ক্ষমতার জোরে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন।

মোঃ আলীমুজ্জামান আরও বলেন, সোহাগের বাবা লিয়াকত আলী খান এবং দাদা গোলাম আলী খান যুদ্ধাপরাধী হিসেবে মৃত্যুদ-প্রাপ্ত আবুল কালাম আজাদ বাচ্চু রাজাকারের সহযোগী ছিলেন। আ’লীগ প্রার্থী একজন রাজাকারের ছেলে হিসেবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার মানুষকে হয়রানী জুলুম নির্যাতন হত্যাসহ নানা ধরনের হুমকি দিচ্ছেন।

দুই শিশু আহত

স্টাফ রিপোর্টার, পঞ্চগড় থেকে জানান, পঞ্চম দফা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে পঞ্চগড়ে নির্বাচন পূর্ব সহিংসতায় দুই শিশু শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। প্রতিপক্ষের লোকজনের আঘাতে আহত শিশুদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রবিবার রাত সাড়ে ৯টায় জেলার সদর উপজেলার মাগুড়া ইউনিয়নের পুড়াডাঙ্গা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলোÑ মাগুড়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী গোলাম রব্বানী রবিউল প্রধানের মেয়ে তাসলিন আক্তার ও একই এলাকার আনিছুর রহমানের মেয়ে আশা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রবিবার সন্ধ্যায় পুড়াডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে রবিউল প্রধানের ফুলবল প্রতীক নিয়ে মিছিল করছিল তার মেয়ে তাসলিনসহ কয়েকজন শিশু। এ সময় প্রতিদ্বন্দ্বী মেম্বার প্রার্থী বারজুল হুদা বাদলের ছেলে সুমন, ভাই শামসুল হক ও ভাগনে আবুল শিশুদের মিছিলের ওপর হামলা চালিয়ে তাসলিন ও তার সহপাঠী আশার গলা টিপে ধরে বেধড়ক মারপিট করে।

বাতিল তিন প্রার্থী বৈধ

স্টাফ রিপোর্টার চট্টগ্রাম থেকে জানান, আগামী ৪ জুন সাতকানিয়া সদর ইউপি নির্বাচনে বাতিল তিন চেয়ারম্যানের প্রার্থিতা সোমবার চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন অফিসার বৈধ ঘোষণা করেছেন। বৈধ ঘোষিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে সরকারদলীয় প্রার্থী হারুনুর রশিদও রয়েছেন। এ ঘটনায় বিস্মিত এলাকার ভোটার ও সাধারণ মানুষ। সরকারদলীয় প্রার্থীর আয়কর রিটার্ন ছিল না। যে কারণে সাতকানিয়া উপজেলা রিটার্নিং অফিসার তার প্রার্থিতা বাতিল করেন। আপীল করার পর সোমবার এ নিয়ে শুনানি হয়। শুনানি শেষে সরকারদলীয় প্রার্থীর প্রার্থিতাসহ অপর দুই প্রার্থীর আবেদনও বৈধ ঘোষণা করা হয়।