মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৯ আশ্বিন ১৪২৪, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

গার্ডিয়ানের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করলেন সাবেক সম্পাদক রাসব্রিজার

প্রকাশিত : ১৭ মে ২০১৬

এ্যালান রাসব্রিজার দু’ দশক পর গার্ডিয়ানের সম্পাদকের দায়িত্ব থেকে গত বছর যখন অবসর নেন তখন তার প্রজন্মের একজন প্রথিতযশা সাংবাদিক হিসেবে ভূয়সী প্রশংসিত হয়েছেন তিনি। একটি মাঝারি মানের ব্রিটিশ সংবাদপত্রকে বিশাল এক আন্তর্জাতিক ডিজিটাল পত্রিকায় উন্নীত করেছেন তিনি। তিনি পত্রিকায় প্রকাশ করেছেন অসংখ্য অনুসন্ধানী রিপোর্ট এবং ইংরেজী ভাষাভাষী বিশ্বে বামঘেঁষা পাঠকদের কাছে পত্রিকাটি হয়ে ওঠে এক প্রিয় পত্রিকা।

কিন্তু রাসব্রিজার (৬২) নিজেকে উৎসর্গ করেছেন যে প্রতিষ্ঠানটির জন্য তা তিনি শুক্রবার ত্যাগ করলেন। সেপ্টেম্বরে গার্ডিয়ানের স্বত্বাধিকারী অলাভজনক প্রতিষ্ঠান স্কট ট্রাস্টের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব গ্রহণের কথা ছিল। গার্ডিয়ানের প্রচুর আর্থিক ক্ষতির মধ্যে শুক্রবার এ আকর্ষণীয় ভূমিকাটি ত্যাগ করতে বাধ্য হন তিনি। বলা হয়েছে, আর্থিক ক্ষতির কারণে পত্রিকাটি হুমকির সম্মুখীন। গার্ডিয়ানের সঙ্গে রাসব্রিজারের সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্তে বেশ কিছু ঘটনার জন্ম দিয়েছে, যা তার উপস্থিতিকে ক্রমবর্ধমানভাবে অসমর্থনযোগ্য বলে দৃশ্যত মনে হচ্ছে। যেগুলো হচ্ছে সম্পাদক হিসেবে তার পুনর্নিয়োগের যে চেষ্টা চলছিল তা থেকে অসন্তোষ ক্রমেই বাড়ছিল, বেশ কিছু নিবন্ধের কারণে পত্রিকাটির আর্থিক বিনিয়োগ ক্রমেই পড়ে যাচ্ছিল এবং শেষত, তার উত্তরসূরি ক্যাথারিন ভাইনারের সঙ্গে একটা সংঘাত সৃষ্টি হচ্ছিল। রাসব্রিজার শুক্রবার গার্ডিয়ানের কর্মীদের উদ্দেশে এক স্মারকে লিখেছেন, আমি পদত্যাগের পর এ বছর অনেক পরিবর্তন ঘটেছে। তিনি উল্লেখ করেন যে, গার্ডিয়ানের নেতৃত্ব, গার্ডিয়ান মিডিয়া গ্রুপের প্রধান নির্বাহী ডেভিড পেমসেল ও সম্পাদক ভাইনার স্কট ট্রাস্টের দায়িত্বে রাসব্রিজারকে আর রাখতে ইচ্ছুক ছিলেন না। গার্ডিয়ানের গত বছর প্রায় সাড়ে ৪ কোটি পাউন্ড (সাড়ে ৬ কোটি ডলার) ক্ষতি হয়েছে। পত্রিকাটির ৩৮ কোটি ডলারের বাৎসরিক বাজেট আগামী তিন বছরের জন্য ২০ শতাংশ হ্রাস করা হয়েছে। ২শ ৫০টি পদ হ্রাস করা হয়েছে এবং ৬০টি শূন্য পদে নিয়োগ হবে না। রাসব্রিজারের অধীনে পত্রিকাটিতে বিনিয়োগ করা হয়েছে কোটি কোটি ডলার। গার্ডিয়ান মিডিয়া গ্রুপের বিনিয়োগ সম্প্রতি আশঙ্কাজনকভাবে হ্রাস পেয়েছে। তহবিল জুলাইয়ে প্রায় ৮৪ কোটি পাউন্ড থেকে জানুয়ারিতে ৭৪ কোটি পাউন্ডে নেমে এসেছে। -ইন্টারন্যাশনাল নিউইয়র্ক টাইমস

প্রকাশিত : ১৭ মে ২০১৬

১৭/০৫/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: