২২ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

উইকেট পেলেন মুস্তাফিজ, জিতল হায়দরাবাদ


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আইপিএল অভিষেকেই মাত করে দিয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান। প্রতিনিয়ত ব্যাটসম্যানদের নাজেহাল করে ছাড়ছেন ২০ বছর বয়সী বাঁহাতি পেসার। তার দুরন্ত কাটার-সেøায়ারে বিভ্রান্ত হয়ে সাজঘরে জগদ্বিখ্যাত সব উইলোবাজ। সেই তিনিই টানা দুই ম্যাচে ছিলেন উইকেটশূন্য! মন ভরাতে না পারলেও কাল উইকেট পেয়েছেন বাংলাদেশী তারকা। ৭ উইকেটের জয় পেয়েছে তার দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদও। মোহালিতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৭৯ রানের ফাইটিং স্কোর গড়ে প্রতিপক্ষ কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। জবাবে অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার (৪১ বলে ৫২), যুবরাজ সিং (২৪ বলে ৪২*) চমৎকার ব্যাটিংয়ে ২ বল বাকি থাকতেই ৩ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় হায়দরাবাদ। এ জয়ে সবার আগে শেষ চার নিশ্চিত হলো ওয়ার্নার-মুস্তাফিজদের। আর রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্টসের পর দ্বিতীয় দল হিসেবে পাঞ্জাবের শেষ চারের আশা শেষ হয়ে গেল।

এই পাঞ্জাবের বিপক্ষেই লীগ পর্বের প্রথম দেখায় মুস্তাফিজের বোলিং ফিগার ছিল ৪-১-৯-২! কাল অবশ্য তার উল্টো দিকটাও দেখতে হয়েছে। আমলার দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের কাছে মুস্তাফিজকে ঠিক মুস্তাফিজ বলে মনে হয়নি। ফলে পাঞ্জাবও পেয়েছে ১৭৯ রানের বড় সংগ্রহ। শুরুতে কিন্তু স্মৃতি ফিরিয়ে এনেছিলেন মুস্তাফিজ। দ্বিতীয় বলেই মুরালি বিজয়কে বোকা বানিয়ে ডেভিড ওয়ার্নারের হাতে ক্যাচ বানিয়েছেন। প্রথম ওভারে এক শিকারের পাশাপাশি দিয়েছেন মাত্র ৪ রান। দ্বিতীয় স্পেল ১৫তম ওভারে। প্রথম বলেই চার খান গুরকিরাত সিংয়ের কাছে। কিন্তু পরের বলগুলোতেই প্রতিশোধ নিয়েছেন মুস্তাফিজ। চারটি বলেই রীতিমতো খাবি খেয়েছেন গুরকিরাত। তৃতীয় ওভারে আমলার হামলার মুখে পড়েন মুস্তাফিজ! প্রথম বলে স্কুপ প্যাডেল করে চার, দ্বিতীয় চার মিড উইকেট দিয়ে। ওভারের সমাপ্তি টানলেন আরেকটি স্কুপ প্যাডেলে। ১ ওভারেই ১৪ রান দেন মুস্তাফিজ!

শেষ ওভারটিও ভাল হয়নি। ১টি চারসহ খরচ ৮ রান। বোলিং ফিগার ৪-০-৩২-১! মুস্তাফিজদের হতাশা উপহার দেয়া আমলা নিজেও অবশ্য হতাশা নিয়ে মাঠ ছেড়েছেন। শেষ ওভারে টি২০তে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ৪ রান দূরে থাকতে আউট হন তিনি। ৫৬ বলে ৯৬ রানের ইনিংসটিতে ১৪টি চার ও ২টি ছক্কা। সান্ত¡না হারা ম্যাচে ম্যাচসেরার পুরস্কার! আইপিএলে এ পর্যায়ে মুস্তাফিজের বোলিংÑ ২/২৬, ১/২৯, ১/৩২, ১/১৯, ২/৯, ০/২১, ১/৩৪, ২/১৭, ৩/১৬, ০/২৬, ০/৩৯ ও ১/৩২। ১২ ম্যাচে ১৪ উইকেট নিয়ে সর্বাধিক শিকারির তালিকায় চতুর্থ স্থানে বাংলাদেশী কাটার-মাস্টার। ১৭ উইকেট নিয়ে শীর্ষে মুম্বাইর মিচেল ম্যাকক্লেনঘান। মাঝের দুটি স্থানে ভূবনেশ্বর কুমার (১৬) ও আন্দ্রে রাসেল (১৫)।

স্কোর ॥ পাঞ্জাব ১৭৯/৪ (২০ ওভার; আমলা ৯৬, ঋদ্ধিমান ২৭, গুরকিরাত ২৭, মিলার ২০*, বিজয় ৬, ম্যাক্সওয়েল ০*; ভূবনেশ্বর ২/৩২, হেনরিক্স ১/২৯, মুস্তাফিজ ১/৩২)

হায়দরাবাদ ১৮০/৩ (১৯.৪ ওভার; ওয়ার্নার ৫২, যুবরাজ ৪২*, হুদা ৩৪, ধাওয়ান ২৫, কাটিং ১৮*; অক্ষর ১/২৬, সন্দীপ ১/৩৫)

ফল ॥ হায়দরাবাদ ৭ উইকেটে জয়ী

ম্যাচসেরা ॥ আমলা (পাঞ্জাব)।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: