২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

আবাহনীতে খেলবেন মনোজ তিওয়ারি


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ভারত জাতীয় ক্রিকেট দলে খেলেছেন, এমন ক্রিকেটারকে এখন অন্য কোন দেশের লীগেই খেলতে দেয়া হয় না। এমনকি ভারতের ঘরোয়া লীগে খেলা ক্রিকেটারদেরও খেলতে দেয়া হয় না। যেখানে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগেই (বিপিএল) খেলে না কোন ভারতীয় জাতীয় দলের ক্রিকেটার, সেখানে ঢাকা প্রিমিয়ার লীগে খেলার প্রশ্নই উঠে না। তবে এবার আবাহনী চমক জাগিয়ে দিয়েছে। ভারত জাতীয় দলের অলরাউন্ডার মনোজ তিওয়ারিকে খেলাবে আবাহনী। এজন্য ঢাকাতেও এখন অবস্থান করছেন তিওয়ারি! আজ মাঠেও নামবেন।

লীগে আবাহনী সেরা দল গড়েছে। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মতো দলই গড়েছে। কিন্তু ‘আকাশী-হলুদ’ শিবির কাগজে-কলমে সেরা দল হলেও মাঠে এর কোন প্রমাণই মিলছে না। ৬ ম্যাচে ৩টিতে জিতেছে। হেরেছে তিনটিতে। আর তাই আবাহনী কর্মকর্তারা বসে থাকতে রাজি নয়। এমন এক ক্রিকেটারকে দলে ভেড়াতে চান, যিনি দলকে এখান থেকে ওপরের দিকেই নিয়ে যাবে। লীগের শুরু থেকেই সেই চেষ্টা করেছে আবাহনী। কিন্তু পারেনি। শেষ পর্যন্ত হয়েছে এবং সেই ক্রিকেটারটি হচ্ছেন তিওয়ারি। যিনি আজ কলাবাগান ক্রিকেট একাডেমির (সিএ) বিপক্ষে ম্যাচ দিয়েই আবাহনীর হয়ে খেলতে নামবেন।

পারবেন তিওয়ারি আবাহনীকে আরও উঁচুতে নিয়ে যেতে? এখন আবাহনী আছে পয়েন্ট তালিকার সাত নম্বরে। ১২ দল খেলছে লীগে। প্রতিটি দলেরই আর আছে লীগ পর্বে ৫টি করে ম্যাচ। এ ম্যাচগুলো শেষে ৬টি দল খেলবে সুপারলীগে। পয়েন্ট তালিকায় সেরা ছয়ে থাকতে পারলেই আবাহনী খেলবে সুপারলীগে। এরপর অবশ্য আবাহনীর মনে হচ্ছে কোন চিন্তা থাকবে না। চ্যাম্পিয়ন দল গড়ে শিরোপা জেতার মতোই খেলবে আবাহনী। তখন যে দেশসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানও যুক্ত হবেন। তবে এখন লীগ পর্ব পেরিয়ে সুপার লীগে ওঠাই আবাহনীর জন্য চ্যালেঞ্জের। আর সেই চ্যালেঞ্জ জিততে মনোজ তিওয়ারিকে একাদশে যুক্ত করেছে আবাহনী।

শুরুতে আবাহনীর হয়ে ভারতেরই উদয় কোল খেলেছেন। প্রথম চারটি ম্যাচ খেলেছে উদয়। আবাহনীও চার ম্যাচের তিনটিতেই জিতেছে। উদয়ও দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছেন। চার ম্যাচের দু’টিতেই অর্ধশতক করেছেন। এরপর উদয়ের পরিবর্তে ভারতেরই আরেক ক্রিকেটার মানবিন্দর বিসলা খেলেন। দুই ম্যাচ খেলে দলকে কিছুই দিতে পারেননি। মনোজ তিওয়ারি এতদিন আইপিএলে সুযোগ পাওয়ার আশায় ছিলেন। যেই সুযোগ হবে না আর বুঝে গেছেন, আবাহনীতে খেলার জন্য রাজি হয়ে গেছেন। বিসলার পরিবর্তেই আজ থেকে খেলবেন তিওয়ারি। কলকাতার এ ডানহাতি ব্যাটসম্যান ও স্পিনার সর্বশেষ ২০১৫ সালে ভারতের জাতীয় দলের জার্সি গায়ে ওয়ানডে খেলেছেন। ১২ ওয়ানডে খেলে একটি ম্যাচে অপরাজিত ১০৪ রানসহ ২৬.০৯ গড়ে ২৮৭ রান করেছেন। নিয়েছেন ৫ উইকেট। আর ৩টি টি২০ ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছেন। মাত্র ১৫ রান করেছেন। তিওয়ারি আইপিএলে দিল্লী ডেয়ারডেভিলস ও কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) হয়েও খেলেছেন। কিন্তু এবার আইপিএলে তার কোন সুযোগই হয়নি। আর তাই ঢাকা লীগে খেলবেন এ অলরাউন্ডার।

২০০৯ সালের পর থেকে ভারতীয় ক্রিকেটাররা অন্য কোন দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলার অনুমতি পান না। কিন্তু এবার আইপিএলের বাইরে থাকা ক্রিকেটারদের ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড সুযোগ দিয়েছে। অন্য দেশের ঘরোয়া লীগে খেলতে পারবেন ক্রিকেটাররা। কারণ, তা না হলে আর্থিক ক্ষতি হবে। সেই ক্ষতি পুষিয়ে নিতেই ঢাকা লীগে খেলার সুযোগ পেয়েছেন মনোজ তিওয়ারি। এখন দেখা যাক, আবাহনীকে কতদূর নিয়ে যেতে পারেন তিওয়ারি।