মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১০ আশ্বিন ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে পরিবহন ধর্মঘট শুরু ॥ যাত্রী ভোগান্তি

প্রকাশিত : ১৬ মে ২০১৬

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে রবিবার থেকে শুরু হয়েছে ৪৮ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘট। ধর্মঘটের কারণে চরম ভোগান্তিতে পড়েছে খুলনাসহ বিভিন্ন জেলার বাসযাত্রীরা। রবিবার ভোর ছয়টা থেকে শুরু হওয়া এ ধর্মঘট মঙ্গলবার ভোর ছয়টা পর্যন্ত চলবে। এদিকে দক্ষিণাঞ্চলের পরিবহন ধর্মঘটের সমর্থনে সমাবেশ করেছে নীলফামারী বাস-মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়ন। সড়ক দুর্ঘটনায় তারেক মাসুদ ও মিশুক মুনীরসহ পাঁচজন নিহতের ঘটনায় দায়ের করা মামলার বিচারকাজ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে শেষ করাসহ বিভিন্ন দাবিতে রবিবার ভোর ছয়টা থেকে ৪৮ ঘণ্টাব্যাপী এ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় কমিটি। শনিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে এ ধর্মঘটের ঘোষণা দেয়া হয়। খবর স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতাদের।

ধর্মঘটের কারণে রবিবার ভোর থেকে খুলনার সোনাডাঙ্গা আন্তঃজেলা বাস টার্মিনাল থেকে যশোর, কুষ্টিয়াসহ বিভিন্ন রুটের এবং ঢাকাসহ দূরপাল্লার কোন রুটের গাড়ি ছেড়ে যায়নি। একইভাবে অন্য জেলা থেকেও খুলনাতে যাত্রবাহী কোন বাস আসেনি। এতে যাত্রীরা চরম ভোগান্তির শিকার হন। অনেক যাত্রী সোনাডাঙ্গা বাস টার্মিনালে এসে ফিরে গেছে।

অভ্যন্তরীণ রুটের যাত্রীরা জানান, খুলনা মহানগরীর বৈকালী এলাকায় ধর্মঘটের সমর্থনকারীরা লাঠিসোটা নিয়ে গণপরিবহন চলাচলে বাধা দেয়। তারা যাত্রীদের জোর করে গাড়ি থেকে নামিয়ে দেয়।

পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় কমিটির সদস্য সচিব আব্দুর রহিম বক্স দুদু বলেন, সর্বাত্মকভাবে খুলনা বিভাগের ১০ জেলায় পরিবহন ধর্মঘট পালিত হচ্ছে। তাদের দাবির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে ফরিদপুর, রাজবাড়ী ও গোপালগঞ্জ জেলায়ও পরিবহন ধর্মঘট পালন করছেন পরিবহন শ্রমিকরা। ধর্মঘটের কারণে বাস-ট্রাক, ট্যাংকলরি ও কাভার্ড ভ্যানসহ সব ধরনের যাত্রী ও পণ্যবাহী যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

যশোর অফিস ॥ রবিবার সকাল থেকে ধর্মঘট শুরু হওয়ায় যশোর থেকে বাস-ট্রাক, ট্যাংকলরি, কাভার্ড ভ্যানসহ সকল প্রকার যাত্রী ও পণ্যবাহী যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। শহরের মণিহার এলাকা, পালবাড়ি মোড়, খাজুরা বাসস্ট্যান্ড ও চাঁচড়া মোড়ে গিয়ে দেখা যায়, যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন যাত্রীরা। বিকল্প যানবাহন হিসেবে মোটরসাইকেল, ইজিবাইক, ভ্যানে যাতায়াত করছেন অনেকে। শ্রমিকরা রাস্তায় ব্যারিকেড দিয়ে ধর্মঘট পালন করছেন।

বরিশাল ॥ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে পরিবহন ধর্মঘটের কারণে রবিবার সকাল থেকে বরিশাল থেকে দূরপাল্লার কোন বাস ছেড়ে যায়নি। তবে অভ্যন্তরীণ রুটে বাস চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি জুবায়ের জাকির জানান, তাদের দাবি পূরণ না হলে ৪৮ ঘণ্টার পর তারা অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দেবেন।

মাগুরা ॥ পরিবহন ধর্মঘটের প্রথম দিন রবিবার মাগুরায় যান চলাচল বন্ধ ছিল। শহরের ভিতর দিয়ে কোন রুটে যান চলাচল করেনি। শহরের ব্যস্ততম ঢাকা রোড ও ভায়নার মোড় স্ট্যান্ড এলাকায় যান চলাচল বন্ধ ছিল। যান চলাচল বন্ধ থাকায় যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

নীলফামারী ॥ দক্ষিণাঞ্চলে ৪৮ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘটের সমর্থনে সৈয়দপুরে সড়ক অবরোধ করে সমাবেশ করেছে জেলা বাস-মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়ন। রবিবার বেলা সাড়ে ১১টা দিকে সৈয়দপুর-দিনাজপুর সড়ক ঘণ্টাব্যাপী অবরোধ করে ওই সড়কের মদিনা হোটেল মোড়ে সমাবেশ করে। এ সময় ওই সড়ক দিয়ে সকল প্রকার যান চলাচল এক ঘণ্টা বন্ধ থাকে। নীলফামারী জেলা বাস-মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আখতার হোসেন বাদলের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আলতাফ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মমতাজ আলী, জেলা বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মজনু, নীলফামারী জেলা মাইক্রো জীপ-কার মালিক সমিতির সভাপতি নিজু কুমার আগরওয়ালা প্রমুখ।

প্রকাশিত : ১৬ মে ২০১৬

১৬/০৫/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: