২৪ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

খোলা সেপটিক ট্যাঙ্কে পড়ে মৃত শিশুর পরিবারকে ২০ লাখ টাকা দেয়ার নির্দেশ কেন দেয়া হবে না


খোলা সেপটিক ট্যাঙ্কে পড়ে মৃত শিশুর পরিবারকে ২০ লাখ টাকা দেয়ার নির্দেশ কেন দেয়া হবে না

স্টাফ রিপোর্টার ॥ চাঁদপুরে ঢাকনাবিহীন সেপটিক ট্যাঙ্কে পড়ে মৃত শিশু আছমা আক্তার পাখির পরিবারকে ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ কেন দেয়া হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট। একই সঙ্গে মর্মান্তিক এ ঘটনায় বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা, ব্যর্থতা ও অবহেলাকে কেন অসাংবিধানিক ও বেআইনী ঘোষণা করা হবে নাÑ রুলে তাও জানতে চাওয়া হয়েছে। অন্যদিকে এগারো বছর আগে ময়মনসিংহ গার্লস ক্যাডেট কলেজের ছাত্রী শর্মিলা শাহরিন পলিন হত্যা মামলায় অভিযোগ (চার্জ) গঠন বাতিল চেয়ে ৪ জনের আবেদনের ওপর শুনানি শেষে আজ সোমবার আদেশ প্রদান করা হবে। রবিবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট বেঞ্চ এ আদেশ প্রদান করেছে।

ট্যাঙ্কে পড়ে মৃত শিশু আছমা আক্তার পাখির পরিবারকে ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ কেন দেয়া হবে নাÑ তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে স্বরাষ্ট্র সচিব, নৌপরিবহন সচিব, বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান, বিআইডব্লিউটিএ’র উপ-পরিচালক (পোর্ট), চাঁদপুরের পুলিশ সুপার, চাঁদপুর সদর থানার ওসিসহ সংশ্লিষ্টদের ওই রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। এ বিষয়ে আগামী ৩০ অক্টোবর পরবর্তী আদেশের জন্য আদালতের তালিকায় আসবে বলেও জানান আইনজীবীরা।

এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি শেষে রবিবার হাইকোর্টের বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মোঃ ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। রবিবার আদালতে রিট আবেদনকারী আবদুল হালিম নিজেই শুনানি করেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি এ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু। ‘সেপটিক ট্যাঙ্কিতে পড়ে শিশুর মৃত্যু’ ও ‘বিআইডব্লিউটিএর সেপটিক ট্যাঙ্কে পড়ে শিশুর মৃত্যু’ শিরোনামে বিভিন্ন সংবাদপত্রে ২৪ ফেব্রুয়ারি প্রতিবেদন প্রকাশ পায়। সংবাদপত্রে ২৪ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত প্রতিবেদন যুক্ত করে ওই ঘটনায় বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা চ্যালেঞ্জ করে চিল্ড্রেনস চ্যারেটি বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের (সিসিবি ফাউন্ডেশন) চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আবদুল হালিম গত ১২ মে রিট আবেদনটি করেন।

আজ আদেশ

এগারো বছর আগে ময়মনসিংহ গার্লস ক্যাডেট কলেজের ছাত্রী শর্মিলা শাহরিন পলিন হত্যা মামলায় অভিযোগ (চার্জ) গঠন বাতিল চেয়ে মেজর নাজমুল হকসহ ৪ জনের আবেদনের ওপর শুনানি শেষ; আজ আদেশ প্রদান করা হবে। বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি আমির হোসেনের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ আদেশের জন্য এই দিন ঠিক করেন। রবিবার আদালতে আসামিদের পক্ষে শুনানি করেন সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন, ডেপুটি এ্যাটর্নি জেনারেল শেখ একেএম মনিরুজ্জামান কবির।

মনিরুজ্জামান কবির সাংবাদিকদের বলেন, ২০০৫ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি ময়মনসিংহ গার্লস ক্যাডেট কলেজের ছাত্রী হোস্টেল থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রী শর্মিলা শাহরিন পলিনের লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনার দিনই ময়মনসিংহ কোতোয়ালি থানায় অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেন কলেজের প্রিন্সিপাল খাদেমুল ইসলাম। পরে একই বছরের ১৯ ফেব্রুয়ারি পলিনের বাবা আবুল বাশার পাটোয়ারি ময়মনসিংহ জেলা জজ আদালতে কারও নাম উল্লেখ না করে দায়িত্বপ্রাপ্তদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। আদালত হত্যার ঘটনা বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দেয়।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: