২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ব্রিটেনের প্রথম নারী মেয়র বাংলাদেশের নাদিয়া, যুক্তরাষ্ট্রে কাউন্সিলম্যান শাহীন খালিক


সালাম মশরুর, সিলেট অফিস ॥ লন্ডন-আমেরিকায় বাংলাদেশীরা শিক্ষাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে মেধা ও দক্ষতায় নিজেদের উল্লেখযোগ্য অবস্থানে নিয়ে যাওয়ার গৌরব অর্জন করে চলেছেন। জনপ্রতিনিধি হিসেবে দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন ক্ষেত্রে নির্বাচিত হওয়ার ধারাবাহিকতা বজায় রেখে ক্রমশ উচ্চপর্যায়ে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে এগিয়ে যাচ্ছেন। যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টে একসঙ্গে বাংলাদেশী তিন কন্যার ইতিহাস গড়ার পর এবার প্রথম বাংলাদেশী নারী হিসেবে ব্রিটিশ শহরের মেয়র হিসেবে ইতিহাসের পাতায় নাম লেখালেন সিলেটের মেয়ে নাদিয়া শাহ। গত বুধবার রাতে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে লন্ডনের কেমডেন কাউন্সিলের মেয়র হিসেবে তিনি দায়িত্ব গ্রহণ করেন। নাদিয়া শাহ কেমডেনের রিজেন্ট পার্ক ওয়ার্ড থেকে লেবার দলের নির্বাচিত কাউন্সিলর। এর আগে এ আসনের কাউন্সিলর ছিলেন বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপ সিদ্দিক।

এদিকে আমেরিকায় বসবাসকারী বাংলাদেশী শাহীন খালিক নিউজার্সি অঙ্গরাজ্যের প্যাটারসন সিটি নির্বাচনে বিপুল ভোটে কাউন্সিলম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। গত মঙ্গলবার দিনব্যাপী ভোটগ্রহণ ও গণনা শেষে প্রবাসী বাংলাদেশী শাহীন খালিককে বেসরকারীভাবে জয়ী ঘোষণা করা হয়। নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর বাংলাদেশী অধ্যুষিত প্যাটারসন সিটিতে বাংলাদেশীদের মাঝে আনন্দের বন্যা বয়ে যায়। প্রবাসীরা খ- খ- মিছিল নিয়ে ছুটে আসেন শাহীন খালিকের ইউনিয়ন এ্যাভিনিউর নির্বাচনী কার্যালয়ে তাকে শুভেচ্ছা জানাতে।

সিটির ওয়ার্ড কাউন্সিল নির্বাচনে শাহীন খালিকের ওই বিজয়কে প্রবাসীরা বাংলাদেশী কমিউনিটির বিজয় বলে উল্লেখ করেন। নির্বাচনে ব্যবসায়ী শাহীন খালিক পেয়েছেন ১ হাজার ৩৮৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান কাউন্সিলম্যান ও একই ওয়ার্ড থেকে গত নির্বাচনে নির্বাচিত প্রথম বাংলাদেশী-আমেরিকান কাউন্সিলম্যান মোহাম্মদ আক্তারুজ্জামান ফয়সল পেয়েছেন ১ হাজার ৩৪৬ ভোট। নির্বাচনে কাউন্সিলম্যান পদে ওই ওয়ার্ড থেকে তিনবারের নির্বাচিত সাবেক কাউন্সিলম্যান আসলান গাঁউ এবং একমাত্র ল্যাটিন-আমেরিকান প্রার্থী এডি গঞ্জালেসও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।