১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

চীনা ট্যাক্সি এ্যাপে শত কোটি ডলার বিনিয়োগ এ্যাপলের


চীনের পরিবহন নেটওয়ার্ক কোম্পানিতে ১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ মার্কিন টেক জায়ান্ট এ্যাপলের জন্য নগণ্য বিষয়ই বটে। কারণ এই সিলিকন ভ্যালি জায়ান্ট প্রতি মাসে ৪০০ কোটি ডলার মুনাফা করে এবং ব্যাংকে তাদের নগদ ও সিকিউরিটি হিসেবে রয়েছে ২৩ হাজার ৩০০ কোটি ডলার। তবে দিদি চুজিং নামে ওই ট্যাক্সি পরিষেবা এ্যাপ কোম্পানির প্রতি এ্যাপলের আগ্রহ এবং বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এই বিনিয়োগের খবর ঢালাওভাবে প্রকাশ করা ব্যতিক্রমী ঘটনা। এর অর্থ, এ্যাপল যে স্থানীয় ব্যবসাতে সমর্থন দিতে আগ্রহী তা চীনা সরকারকে জানানো। খবর ইন্টারন্যাশনাল নিউইয়র্ক টাইমস।

দিদি চুজিং স্মার্টফোন এ্যাপের মাধ্যমে ট্যাক্সি ভাড়া দেয়। অন্যান্য বড় আমেরিকান প্রযুক্তি কোম্পানির চেয়ে চীনে এ্যাপল ব্যাপক সাফল্য পেয়েছে। গত অর্থবছরে এ্যাপল পণ্য কিনতে চীনা ভোক্তারা পাঁচ হাজার ৯০০ কোটি ডলার খরচ করেছে। তবে সাফল্যের সঙ্গে অনেক ঝুঁকিও বয়ে এসেছে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে চীন স্থানীয় প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোর সম্প্রসারণের এজেন্ডা নিয়ে আগ্রাসী ভূমিকা পালন করছে। এর ফলে মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিগুলো যদি চীনা মার্কেটে প্রবেশ করতে চায় তাহলে তাদের চীনা নিয়ম মানতে হবে। এ্যাপল সম্প্রতি চীনে ক্রমবর্ধমান নিরীক্ষার সম্মুখীন হয়েছে। দেশটিতে নিয়ন্ত্রকরা এ্যাপলের আইবুক ও আইটিউনস সিনেমা স্টোর বন্ধ করে দিয়েছে। সিসকো, মাইক্রোসফট ও কোয়ালকমের মতো অন্যান্য কোম্পানিও এরূপ বাধার মুখে পড়ে। এ বাধা পার হতে তারা চীনে স্থানীয় অংশীদারিত্বে বিনিয়োগ করতে সাড়া দিয়েছে এবং তারা শুধু বিদেশী কোম্পানি নয় বরং চীনের স্টকহোল্ডার বলেও নিজেদের চিত্রিত করার চেষ্টা করছে। চীনা প্রযুক্তি গবেষণা প্রতিষ্ঠান মারব্রিজ কনসাল্টিংয়ের মহাপরিচালক মার্ক নাটকিন বলেছেন, চীনা সরকারের সঙ্গে নিজের সম্পর্কের উন্নয়নে এ্যাপলকে আরও সংবেদনশীল হতে হবে এবং চীনা বাজারে প্রযুক্তি কোম্পানিটির অবস্থান আরও সুরক্ষিত করতে হবে। তাই চীনের শীর্ষ আইটি কোম্পানিতে বড় ধরনের বিনিয়োগ সুনাম বয়ে আনবে। তিনি আরও বলেন, বেজিংয়ের সুনজরে থাকতে এ্যাপলকে চীনে অন্যান্য অংশীদারের মতো বিনিয়োগ করতে হবে। এ্যাপলের ক্ষেত্রে, এই নতুন বিনিয়োগ বেজিংকে এটি দেখাতে সহায়ক হবে যে, কিভাবে এ্যাপলের অপারেটিং সিস্টেম ও আইফোন চীনে এ্যাপের উন্নয়নের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে সম্পৃক্ত। উদাহরণস্বরূপ, দিদি এ্যাপ চীনের সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড করা ট্যাক্সি পরিষেবা এ্যাপ।

দিদি চুজিংয়ে বিনিয়োগের খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে এ্যাপলের প্রধান নির্বাহী টিম কুক জানান, এই উদ্যোগ চীনের বাজার বুঝতে তাদের সাহায্য করবে। দিদি চুজিং আগে দিদি কুয়াইদি নামে পরিচিত ছিলো। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এককভাবে নিজেদের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় অঙ্কের বিনিয়োগ পেয়েছে তারা। চার বছর আগে তৈরি হওয়া ট্যাক্সি পরিষেবা এ্যাপটিতে এটি এখনও পর্যন্ত বৃহত্তম লগ্নি। প্রতিষ্ঠানটি মূলত চীনা ইন্টারনেট জায়ান্ট টেনসেন্ট ও আলিবাবার সহযোগিতায় গড়ে উঠেছে। স্থানীয় বাজারে নিজেদের দখলে ৮৭ শতাংশ মার্কেট শেয়ার রয়েছে বলে দাবি এই প্রতিষ্ঠানের। দিদি পাল্লা দেয় মার্কিন ট্যাক্সি পরিষেবা এ্যাপ উবেরের সঙ্গে। বিনিয়োগকারী হিসেবে সার্চ জায়ান্ট বাইদুকে পেয়েও চীনের বাজারে সুবিধা করে উঠতে পারছে না উবের। ফেব্রুয়ারিতে দেয়া এক ঘোষণায় প্রতিষ্ঠানটি স্বীকার করেছে, এক বছরে চীনের বাজারে ১০০ কোটি ডলার লোকসান গুনেছে তারা।