২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

আইল্যান্ডে ফুলের টব ও বাতি ছাড়া চসিকের কোন উন্নয়ন নেই ॥ মহিউদ্দিন


স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী দাবি করেছেন, চট্টগ্রামে রাস্তার পাশে ও আইল্যান্ডে ফুলের টব বসানো ও গার্ডেন বাতি জ্বালানো ছাড়া দৃশ্যমান কোন উন্নয়ন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন করতে পারেনি। তিনি বলেন, জনদুর্ভোগ নিরসন এবং নাগরিক সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত না করে নগরবাসীর ওপর করারোপ জনকল্যাণমুখী সরকারের ভাবমূর্তিকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে। তিনি আরও বলেন, চট্টগ্রাম মহানগরীতে পরিচ্ছন্নতা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য সেবা খাত এবং অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ ব্যবস্থাপনা সম্পূর্ণভাবে ভেঙ্গে পড়েছে। চট্টগ্রাম বন্দর, রেলওয়েসহ অনেক সরকারী-আধাসরকারী সংস্থার কাছে শত শত কোটি টাকার রাজস্ব আদায় হলে নগরবাসীর কাছ থেকে হোল্ডিং ট্যাক্স বাড়ানোর প্রয়োজন পড়ে না এবং সিটি কর্পোরেশনের সেবা খাতের মানোন্নয়ন ও অবকাঠামোগত উন্নয়নের জোয়ার বইবে।

শনিবার বিকেলে তার চশমাহিলের বাসভবনে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (ইনু) এর চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর ও দক্ষিণ জেলা নেতৃবৃন্দের সঙ্গে এক সৌজন্য বৈঠকে একথা বলেন। তিনি আরও বলেন, চট্টগ্রামের স্বার্থের কথা বললেই অনেক মন্ত্রী, এমপি মহারথীরা বাঁকা চোখে দেখেন এবং বিব্রতবোধ করেন। কারণ তারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত হবার পর জনগণের কাছ থেকে দূরে সরে যান। তাদের একমাত্র ব্রত পদ ও ক্ষমতাকে আঁকড়ে ধরা। তিনি চট্টগ্রামের স্বার্থরক্ষা ও উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিকতার প্রশংসা করে বলেন, স্থানীয় নেতৃত্ব চট্টগ্রামের স্বার্থ ও সঠিক উন্নয়নের পরিকল্পনা এবং চট্টগ্রামবাসীর অগ্রাধিকার ভিত্তিক চাওয়া-পাওয়া তার কাছে তুলে ধরতে ব্যর্থ হয়েছে। এই ব্যর্থতা দুর্ভাগ্যজনক। তিনি এ প্রসঙ্গে বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরের প্রাণ কর্ণফুলী নদী মরতে বসেছে। পিলার সেতুর কারণে কর্ণফুলী নদীর বুক এখন ধু-ধু বালুচর। অথচ কর্ণফুলীর অপরিকল্পিত ড্রেজিংয়ের নামে একটি চক্র কয়েকশ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে গেছে। তিনি চট্টগ্রাম বন্দরের নিরাপত্তাহীনতা ও জীর্ণ দশার চিত্র তুলে ধরে বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরের দুর্বল নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনা ভেঙ্গে বহিরাগতরা অবাধে যাতায়াত করছে। তারা এখানে লুটপাট করছে। বন্দরের শ্রমিকদের কাজের পরিবেশ নেই, পানি ও টয়লেট নেই, লেবার শেড নেই। এখানে সংস্কার ও অবকাঠামোগত উন্নয়ন নেই। অথচ বন্দর তহবিল থেকে বিপুল অর্থ বাইরে চলে যাচ্ছে এবং এভাবে বন্দরকে তহবিলশূন্য করা হচ্ছে।

সৌজন্যে বৈঠককালে জাসদ (ইনু) চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর ও দক্ষিণ জেলা নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জউ বাবুল, বেলায়েত হোসেন, আবুল কাসেম, আমিনুর রসুল, অভিক ওসমান, তপন চৌধুরী, আহমদ সরিফ, সেমিল চৌধুরী, সাইফুল আকতার, মঈনুল আলম খান, তাজুল ইসলাম মাস্টার, হারুনুর রশিদ, সাইদুর রহমান আরমান, কবিয়াল পনি বড়ুয়া, নৃপতি বড়ুয়া, মোঃ আবুল কালাম, আরিরুল ইসলাম, সহিদুল ইসলাম রিপন, মোঃ ইসমাইল, ইলিয়াছ ফয়েজি, মোঃ সেলিম প্রমুখ।

বিসিএস ২০তম ব্যাচের ফ্যামিলি ডে ২৯ মে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিসিএস-এর ২০ ব্যাচের ক্যাডার সদস্যদের ১৫ বছর পূর্তিতে ফ্যামিলি ফেস্টিভ্যাল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। একই সঙ্গে একটি স্মরণিকাও প্রকাশ করা হবে।

আগামী ২৯ মে ঢাকার অফিসার্স ক্লাবে সন্ধ্যা ৬টায় কেক কেটে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করবেন বিভিন্ন ক্যাডারের শীর্ষ কর্মকর্তাবৃন্দ। এ লক্ষ্যে ২০ ব্যাচের সকল কর্মকর্তাকে স্মরণিকায় প্রকাশের জন্য আগামী ২০ মের মধ্যে অনলাইনে নাম ও ছবি অন্তর্ভুক্তি করে রেজিস্ট্রেশন করায় অনুরোধ জানানো হয়েছে। ২০ ব্যাচের কর্মকর্তাদের পক্ষে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ঠিকানা-ww w.bcs20forum.org