২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

মীরসরাইয়ে নিহত ৪৫ শিক্ষার্থী স্মরণে স্মৃতিস্তম্ভ উদ্বোধন


চট্টগ্রাম অফিস/মীরসরাই সংবাদদাতা ॥ চট্টগ্রামের মীরসরাইতে সংঘটিত ট্র্যাজেডি স্থলে ৫ বছর পর নির্মাণ হচ্ছে স্মৃতিস্তম্ভ ‘অন্তিম’। শোকার্ত স্বজনসহ এলাকার সর্বস্তরের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকসহ সচেতন সমাজের দাবি ছিল ‘সেই মরণ খাদে’, যেই খাদে ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে প্রাণ হারিয়েছে ৪৫ তাজা প্রাণÑ সেই খাদেই একটি স্মৃতিসৌধ স্থাপন করা। সকলের এই স্বপ্ন বাস্তবায়নের প্রত্যাশা দিয়েছিলেন তৎকালীন এমপি, বর্তমান গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।

মীরসরাই উপজেলার বড়তাকিয়া আবুতোরাব সড়কের দুর্ঘটনাস্থল সেই রাক্ষুসে খাদের ওপর নান্দনিক শৈল্পিকতায় গত শনিবার বিকেলে উক্ত স্মৃতিসৌধের উদ্বোধন করেন গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী দীপক রঞ্জন অধিকারী, জেলা পরিষদের সচিব সাব্বির ইকবাল, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিয়া আহমেদ সুমন, আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ যথাক্রমে জিতেন্দ্র প্রসাদ নাথ মন্টু, আলহাজ মহিউদ্দিন রাশেদ, জসিম উদ্দিন, শেখ আতাউর রহমান, জাহাঙ্গির কবির, স্থানীয় চেয়ারম্যান কবির নিজামী, শাহিনুল কাদের চৌধুরী ও জাহাঙ্গির মাস্টার প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালের ১১ জুলাই একসঙ্গে একই এলাকার অর্ধশতাধিক স্কুলছাত্র প্রাণ হারিয়েছিল এই রাক্ষুুসী খাদে পড়ে। উপজেলার বড়তাকিয়া-আবুতোরাব সড়কের মধ্যবর্তী স্থান সৈদালী গ্রাম এলাকায় অবস্থিত এই খাদ। এই খাদের পাশ দিয়ে যাওয়া সড়কটিতে চলাচলকারী পথচারীরা সেই খাদের সামনে যাওয়া মাত্রই এখনও থম্কে দাঁড়ায়! সেই স্থানে নির্মিত হচ্ছে উক্ত স্মৃতিস্তম্ভ ‘অন্তিম’। ‘অন্তিম’ নির্মাণের জন্য চট্টগ্রামের জেলা পরিষদ থেকে মোট ব্যয় হয় ৩৫ লাখ টাকা।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: