মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৯ আশ্বিন ১৪২৪, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

দৃষ্টিহীনদের মূল ধারায় অন্তর্ভুক্ত করতে হবে ॥ গবর্নর

প্রকাশিত : ১৫ মে ২০১৬

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ ব্যাংকের গবর্নর ফজলে কবির বলেছেন, দৃষ্টিহীন হলেই মানুষ অন্ধ হয়ে যায় না। দৃষ্টিহীনদের অন্তর্দৃষ্টি থাকে প্রখর। যেটা অন্যদের থাকে না। শনিবার সকালে রাজধানীর পুলিশ স্টাফ কলেজ কনভেনশন হলে ‘দৃষ্টিহীনদের মুদ্রা চেনানো’র ওপর এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

গবর্নর ফজলে কবির বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং বিশ্ব ব্যাংকের এক জরিপে দেখা যায় অনুন্নত দেশে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের সংখ্যা ১৫ শতাংশ। তবে, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্যমতে দেশের ৪ শতাংশ মানুষ দৃষ্টি প্রতিবন্ধী। সেক্ষেত্রে এই সংখ্যা ৩০ লাখের বেশি হবে না। এর মধ্যে অনেকেই গ্রামে থাকেন। তাদের কাছেও সেবা পৌঁছে দিতে হবে। তিনি বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে দেশকে মধ্যম আয়ে নিয়ে যেতে হলে এই দৃষ্টিহীন মানুষদের মূল ধারায় অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। দৃষ্টিহীন মানুষের অন্তর্দৃষ্টি প্রখর থাকে। দৃষ্টিহীন হলেই মানুষ অন্ধ হয়ে যায় না। গবর্নর বলেন, ২০১০ সালে জাতিসংঘের সনদে স্বাক্ষরকারী দেশ এবং ২০১৩ সালে প্রতিবন্ধীদের অধিকার আইন বাস্তবায়নে আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করতে হবে। ফজলে কবির বলেন, বাংলাদেশের টাকা স্পর্শানুভূতি দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। ৫০০ টাকার নোট থেকে ১০ টাকার নোট পর্যন্ত কিছু স্পর্শ জায়গা রয়েছে, যার মাধ্যমে দৃষ্টিহীনরা অর্থমূল্য বুঝতে পারবেন। এ জন্যে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণও দেয়া হবে। যেটা জেলা পর্যায়ে নিয়ে যেতে হবে। সেমিনারে আরও বক্তব্য রাখেন- বিবিআইএম এর পরিচালক তৌফিক আহমেদ চৌধুরী, বিপিআইএস এর প্রতিষ্ঠা সভাপতি মনসুর আহমেদ চৌধুরী, ফ্রান্সের ব্যাংক নোট প্রস্তুতকারী বিশেষজ্ঞ জো-কেসেডিন, আইএসআইটির ভাইস চেয়ারম্যান শাহনাজ শারমীন, বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক শুভঙ্কর সাহা, আইআইসিটির চেয়ারম্যান ড. মোঃ জালালউদ্দিন প্রমুখ।

যুক্তরাষ্ট্রে প্রত্যাশার চেয়ে বেশি খুচরা বিক্রি

এপ্রিলে যুক্তরাষ্ট্রে প্রত্যাশার চেয়ে বেশি বেড়েছে খুচরা বিক্রি। গাড়ি বিক্রি বাড়ায় এ সময়টায় সামগ্রিক খুচরা বিক্রি বেড়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, এ সময়টায় খুচরা বিক্রি মার্চের তুলনায় ১ দশমিক ৩ শতাংশ বেড়েছে, যা ২০১৫ সালের মার্চের পর সর্বোচ্চ। এ সময় গাড়ি বিক্রি ৩ দশমিক ২ শতাংশ বেড়েছে। এপ্রিলে গাড়ি, জ্বালানি তেল এবং খাদ্যপণ্য বিক্রি হয়েছে সর্বোচ্চ। পাশাপাশি বিক্রি হয়েছে আবাসন খাতে প্রয়োজনীয় পণ্য। তুলনামূলক কম বাড়লেও এ সময় অনলাইনে পোশাক কেনাকাটার হার বেড়েছে। -অর্থনৈতিক রিপোর্টার

দাম বাড়ায় ভারতে স্বর্ণ বিক্রি হ্রাস

অক্ষয়া তৃতীয়া উৎসবকে কেন্দ্র করে স্বর্ণ বিক্রি বাড়ার সম্ভাবনা থাকলেও দাম বাড়ায় এবার গত বছরের চেয়ে কমেছে স্বর্ণের বিক্রি। স্বর্ণ কেনার দ্বিতীয় বৃহত্তম উৎসবেও এবার বিক্রি কম হওয়ায় হতাশ ব্যবসায়ীরা। এজন্য দাম বাড়াকেই কারণ হিসেবে দেখছেন ক্রেতারা। স্বর্ণ বিক্রির ওপর করারোপের কারণে ৪৫ দিন বন্ধ থাকার পর কয়েক সপ্তাহ আগে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা নিয়েই দোকান খুলেছেন ভারতের স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। কারণ সামনেই রয়েছে স্বর্ণ কেনার দ্বিতীয় বৃহত্তম উৎসব অক্ষয়া তৃতীয়া। আর এ উৎসব ভারতে স্বর্ণ কেনার দ্বিতীয় বৃহত্তম উৎসব হিসেবে পরিচিত। স্বর্ণ ছাড়াও এ সময় রুপাও বিক্রি হয় চুটিয়ে। তবে এবার দাম বাড়ায় কমেছে স্বর্ণের বিক্রি। এ বছর প্রতি ১০ গ্রামে ৩০ হাজার রুপী করে বেড়েছে স্বর্ণের দাম। যা গেল বছরের তুলনায় ১০ শতাংশ বেশি। তবে কিছুটা কমেছে রুপার দাম। স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের তথ্যমতে, গেলো বছরের তুলনায় এ বছর স্বর্ণ চাহিদা ৩৫ শতাংশ পর্যন্ত কমেছে। -অর্থনৈতিক রিপোর্টার

প্রকাশিত : ১৫ মে ২০১৬

১৫/০৫/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: