২৪ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

যৌন নিপীড়ন সইতে না পেরে বাবাকে খুন


যৌন নিপীড়ন সইতে না পেরে বাবাকে খুন

অনলাইন ডেস্ক॥ প্রতিনিয়ত যৌন নিপীড়নের শিকার হওয়া থেকে মুক্তি পেতে দুই তরুণী হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে বাবাকে খুন করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল ভারতের রাজধানী দিল্লির গাজিয়াবাদের রাজনগরে। ওই দুই বোন ভিডিওতে নিজ বাবাকে খুনের কথা স্বীকারও করেছে। তবে পুলিশ এ কথা বিশ্বাস করছে না। তাদের দাবি, স্রেফ দুর্ঘটনায় পড়ে ওই ব্যক্তি মারা গেছেন। এ ব্যাপারে নিশ্চিত হতে তারা লাশের ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের অপেক্ষায় আছেন। খুন হওয়া ওই বাবার নাম করন সিং [৪৫]। খবর টাইমস নিউজ নেটওয়ার্কের

বাবা সন্তানদের ভালোবাসবেন ও বিপদ আপদ থেকে বাঁচাবেন এটাই হওয়ার কথা। কিন্তু তাই বলে প্রতিনিয়ত বাবার হাতে যৌন নিপীড়ন! যা সহ্য করতে না পেরে অবশেষে নিজের দুই মেয়ের হাতেই খুন হতে হলো! যৌন নিপীড়নের জন্য বাবাকে খুনের কথা একটি ভিডিওতে স্বীকারও করেছেন ওই দুই তরুণী। আর এই ভিডিও ইন্টারনেটে মারাত্মক আকারে ছড়িয়ে পড়েছে।

বাবাকে কীভাবে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে খুন করেছেন তার বর্ণনাও দিয়েছেন ওই দুই তরুণী। তাদের ভাষায়, 'হ্যাঁ, আমরা তাকে খুন করেছি কারণ সে প্রতিনিয়ত আমাদের দিকে যৌন লালসা নিয়ে এগিয়ে আসতো। একটা হাতুড়ি দিয়ে আমরা তাকে খুন করি। এতে এখন সে আমাদের জন্য কোনো সমস্যা তৈরি করতে পারবে না।'

এদিকে, রাজনগরস্থ মেডিকেল কলেজ পুলিশ স্টেশনের ইনচার্জ রবীন্দ্র কুমার বলেন, 'করন সিং নিয়মিত মদ পান করতেন। শুক্রবার ভোরের দিকে সে মদ্যপ অবস্থায় বাসায় ফিরে, অস্থিরভাবে এদিক-ওদিক হাঁটছিল, দেয়ালের সঙ্গে লেগে মাথায় আঘাত পান ও পড়ে যান। এতে তিনি মারাত্মক আঘাত পান ও তাৎক্ষণিক মারা যান। পোস্ট মর্টেমের জন্য মরদেহ পাঠানো হয়েছে।'

অপরদিকে, করন সিংয়ের স্ত্রী ঘটনার পরপরই তাদের ৫ বছরের ছেলে সন্তানকে নিয়ে বাড়ি ছেড়েছেন। করন মদ পান করতো ও তাদের বাড়িতে নিয়মিতই উচ্চ আওয়াজ হতো বলে প্রতিবেশিরা জানান।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: