২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

আজ পারবেন সাকিব?


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ হতাশা কাটিয়ে ছন্দে ফিরেছেন। গুজরাট লায়ন্সের বিপক্ষে ব্যাটে-বলে দারুণ আলো ছড়িয়েছেন সাকিব-আল হাসান। ব্যাটিংয়ে অপরাজিত ৬৬ রানের পর বল হাতে নিয়েছেন ১ উইকেট। কিন্তু তার দল কলাকাতা নাইট রাইডার্স হেরে গেছে ৫ উইকেটের বড় ব্যবধানে! আজ কলকাতাকে জেতাতে পারবেন তিনি? ঘরের মাঠ ইডেন গার্ডেন্সে নাইটদের প্রতিপক্ষ ৩ জয়ে পয়েন্ট টেবিলের ৭ম থাকা রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্টস। ১১ ম্যাচে ৮ হারে টুর্নামেন্টে শেষ চারের আশা কার্যত শেষ মহেন্দ্র সিং ধোনিদের (পরিসংখ্যান শুক্রবারের খেলার আগ পর্যন্ত)! সেখানে ১০ ম্যাচে ৬ জয়ে চতুর্থ স্থানে গৌতম গাম্ভীরের কলকাতা। দিনের প্রথম ম্যাচে দ্বিতীয় স্থানে থাকা সুরেশ রায়নার গুজরাটকে মোকাবেলা করবে কোণঠাসা রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। ৪ জয়ে ষষ্ঠ স্থানে বিরাট কোহলির দল। সুপার কোহলির সঙ্গে ক্রিস গেইল-এবি ডি ভিলিয়ার্সদের নিয়ে গড়া তারকাখচিত ফ্র্যাঞ্চাইজিটির জন্য ম্যাচটা মহাগুরুত্বপূর্ণ। আইপিএল অভিষেকেই ক্রিকেট বিশ্বে আলোড়ন তুলেছেন মুস্তাফিজুর রহমান। প্রতিষ্ঠিত সাকিব সেখানে ছিলেন একেবারেই ম্লান। এমন কি দলের খেলা সব ম্যাচের একাদেশেও সুযোগ হয়নি তারা! আগের পাঁচ ম্যাচে দুটি মাত্র উইকেট, ব্যাট হাতে তিন ইনিংসে ১১, ৩ ও ৬। সঙ্কট কাটিয়ে উঠতে গোপনে ঢাকায় এসেছিলেন ‘গুরু’ মোহাম্মদ সালাহউদ্দিনের টিপস নিতে। টনিকের মতো কাজে দিয়েছে! ফিরে গিয়েই দারুণভাবে জ্বলে ওঠেন। গুজরাটের বিপক্ষে সেদিন ৪৯ বলে ৪ চার ও ৪ ছক্কায় খেলেন অপরাজিত ৬৬ রানের মনোমুগ্ধকর ইনিংস। বোলিংয়ে ৩ ওভারে ৩৮ রান দিয়ে পরিষ্কার বোল্ড করে তুলে নেন ডোয়াইন স্মিথকে। তাহলে কি গুরুর এতটুকু স্পর্শেই বদলে যাওয়া? সাকিবের জবাব, ‘সেদিন শুরুর দিকে অতটা ভাল ব্যাটিং করিনি। শেষ পর্যন্ত যেহেতু রান পেয়েছি, তাই বলতে হবে এটা কাজে দিয়েছে! সত্যি বলতে পুরো বিষয়টাই মানসিক।’

দলের হারের মাঝেও আত্মবিশ্বাস পেয়েছেন সাকিব, ‘আত্মবিশ্বাসে আমার কখনই খুব একটা ঘাটতি ছিল না। আসলে অনেক সময় আত্মবিশ্বাস থাকলেও কিছু জিনিস ঠিকঠাক হয় না। এজন্য কঠোর পরিশ্রম করতে হয়। কখনও আবার আত্মবিশ্বাস বাড়াতে ভাগ্যের ছোঁয়াও লাগে।’ সাকিব একেবারে পারফেক্ট সময়ে ফর্মে ফিরেছেন। কারণ শেষ চারের লড়াইয়ে লীগ পর্বের বাকি চার ম্যাচই কলকাতার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। তার ওপর তিনি দলের অন্যতম স্তম্ভ। গাম্ভীরবাহিনী এ পর্যন্ত যে দু’বার শিরোপা জিতেছে, তাতে ব্যাটে-বলে বাংলাদেশী অলরাউন্ডারের বিশাল অবদান। অন্যদিকে কঠিন চাপের মুখে ধোনির দল। প্রথম দেখায় কলকাতার কাছে ২ উইকেটে হেরেছিল পুনে।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: