মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৯ আশ্বিন ১৪২৪, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বিএনপি নেতার মোসাদ কানেকশনের খবরে সর্বত্র বিস্ময়

প্রকাশিত : ১৪ মে ২০১৬
বিএনপি নেতার মোসাদ কানেকশনের খবরে সর্বত্র বিস্ময়
  • দলীয় চেয়ারপার্সনের মেসেজ নিয়ে কি এ বৈঠক?

মোয়াজ্জেমুল হক, চট্টগ্রাম অফিস ॥ বর্তমান আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারকে উৎখাতে বিএনপির পক্ষে এক নেতার ইসরাইলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের সঙ্গে ভারতে বৈঠকের ঘটনা ফাঁস হয়ে যাওয়ার পর সর্বত্র বিস্ময় সৃষ্টি হয়েছে। বিএনপির এ নেতা আসলাম চৌধুরী দলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক। তার বাড়ি চট্টগ্রামের সীতাকু-ে। মোসাদের সঙ্গে বৈঠকে বাংলাদেশী এক সাংবাদিকও উপস্থিত ছিলেন বলে যে তথ্য প্রকাশ হয়েছে তিনি বন্ধ হয়ে যাওয়া দৈনিক আমার দেশ পত্রিকায় একজন সিনিয়র সাংবাদিক হিসেবে কাজ করতেন। তার পাসপোর্ট জব্দ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে এ সাংবাদিক ও বিএনপি নেতা আসলাম চৌধুরী গা-ঢাকা দিয়ে রয়েছেন। প্রশ্ন উঠেছে, দলের যুগ্ম-সম্পাদক দলীয় চেয়ারপার্সনের মেসেজ নিয়ে কি এ বৈঠকে অংশ নিয়েছেন? এ বিষয়ে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম জানিয়েছেন, সরকার তথ্যপ্রমাণের জন্য অপেক্ষা করছে। বিএনপি নেতা আসলাম চৌধুরীর ইসরাইলী রাজনৈতিক নেতা ও ইসরাইলী গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের প্রতিনিধির সঙ্গে বৈঠকের যে খবর বেরিয়েছে তা সত্য প্রমাণিত হলে দলটির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। প্রয়োজনে মোসাদ কানেকশনের জন্য বিএনপিকে নিষিদ্ধ করার ব্যবস্থাও নেয়া যেতে পারে।

এদিকে, চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা ফাঁস হওয়ার পর পুলিশ ও ডিজিএফআই কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে চট্টগ্রামে একটি তদন্ত কমিটি হয়েছে। কমিটি গঠনের কথা স্বীকার করেছেন চট্টগ্রাম রেঞ্জ ডিআইজি সফিকুল ইসলাম। শনিবার সাংবাদিকদের তিনি জানিয়েছেন, কমিটিতে পাঁচ পুলিশ কর্মকর্তা রয়েছেন। পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের সূত্র ও বিভিন্নভাবে প্রাপ্ত তথ্যাদি সংগ্রহ করার পাশাপাশি তদন্তও চলছে। ভারতের দিল্লীতে ইসরাইলী লিকুদ পার্টি ও মোসাদের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের সঙ্গে কয়েক ভারতীয়সহ বাংলাদেশী এই রাজনৈতিক নেতা ও বিএনপি সমর্থিত বন্ধ হয়ে যাওয়া পত্রিকাটির সাংবাদিকের সমন্বয়ে বৈঠকের ঘটনা বিএনপির পক্ষ থেকে অস্বীকার করা হচ্ছে বটে। কিন্তু বিএনপি নেতা আসলাম চৌধুরী শুক্রবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রেরিত ভিডিওবার্তায় বৈঠকের বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তবে অস্বীকার করেছেন যে, বৈঠকটি বাংলাদেশের সরকার উৎখাতের জন্য ছিল না। এ বৈঠক তার দিল্লী সফরকালে শুভাকাক্সক্ষী কয়েকজনের সমন্বয়ে হয়েছে বলে দাবি করেছেন। অভিযুক্ত বিএনপির যুগ্ম-সম্পাদক আসলাম চৌধুরী তার ঘনিষ্ঠজনদের দিয়ে রেকর্ড করিয়ে ভিডিও বার্তায় বলেছেন, তিনি মোসাদের এজেন্ট মেনদি এন সাফাদির সঙ্গে বৈঠক করেছেন, যা সরকার উৎখাতের কোন প্রসঙ্গ ছিল না। এটি ছিল তাদের নিজস্ব বৈঠক।

অপরদিকে তদন্ত কমিটি গঠিত হওয়ার পর কমিটি সূত্রে জানানো হয়েছে, অনুসন্ধানে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে অর্থাৎ গ্রেফতার করা হবে। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে বিএনপির এ নেতার সঙ্গে ইসরাইলী গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের এজেন্ট মেনদি এন সাফাদির সঙ্গে বৈঠকের কথা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন তথ্য ও ছবিসহ প্রকাশিত হচ্ছে। এ জাতীয় একটি বৈঠকের আগে মেনদি এন সাফাদির আসলাম চৌধুরীকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়া এবং দাঁড়িয়ে তোলা ছবিও মিডিয়ার কাছে চলে এসেছে। কয়েকটি ছবি ইতোমধ্যে প্রকাশিতও হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সরকারের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিয়ে ইতোমধ্যে কড়া পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। আসলাম চৌধুরী ও ওই সাংবাদিককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। সূত্র ওই সাংবাদিকের নামের আধ্যক্ষর ‘স’ ও শেষে ‘চৌধুরী’ রয়েছে বলে ইঙ্গিত দিয়েছে। অভিযুক্ত এ সাংবাদিক বর্তমানে কোথায় আছেন তা জানা না গেলেও আসলাম চৌধুরী যে ঢাকায় রয়েছেন তা নিশ্চিত। সূত্র আরও জানিয়েছে, পুরো বিষয়টি বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া অবহিত রয়েছেন। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শুক্রবার দাবি করেছেন, বিএনপির সঙ্গে ইসরাইলের কোন সম্পর্ক নেই। তবে বর্তমান সরকারকে উৎখাতের মাধ্যমে ইসরাইলের সঙ্গে বাংলাদেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে এ বৈঠকের ব্যাপারটি ইসরাইলের ইন্টেলিজেন্স সার্ভিস, ইসরাইলের রাজনৈতিক দল লিকুদ পার্টির নেতৃবৃন্দ, মেনদি এন সাফাদি, মোসাদ অবহিত রয়েছে।

এদিকে, বিএনপির যুগ্ম-সম্পাদক আসলাম চৌধুরীর এহেন কর্মকা-ে দলের মধ্যে বিশেষ করে চট্টগ্রামের নেতাকর্মীদের মাঝে এক ধরনের বিস্ময় ও আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। একে তো রাজনীতিতে একের পর এক বিপর্যয়, তার ওপর মুসলিমবিদ্বেষী ইসরাইলের গোয়েন্দা সংস্থার সঙ্গে আসলাম চৌধুরীর বৈঠকের বিষয়টি ফাঁস হওয়ার পর তাদের কাছে বিষয়টি বজ্রাঘাত সমতুল্য হয়েছে। পৃথিবীর এই একটি মাত্র দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই। বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতি অনুযায়ী সরকার প্যালেস্টাইন মুক্তিকামী জনতার পক্ষে। সেই প্যালেস্টাইনের জনবহুল এলাকায় ইসরাইলী বর্বরতায় নারী-পুরুষ, শিশু নির্বিশেষে অকাতরে প্রতিনিয়ত প্রাণ হারাচ্ছে, যার নিন্দায় পুরো বাংলাদেশ মুখর। এ ধরনের বর্বর একটি দেশের সঙ্গে হাত মিলিয়ে বিএনপি নেতা আসলাম চৌধুরী কার নির্দেশে কী বার্তা নিয়ে বৈঠক করলেন তা-ই এখন দেখার বিষয়। তাকে যখন গ্রেফতার করা হবে এবং রিমান্ডে নেয়া হবে তখন হয়ত বেরিয়ে আসবে থলের বিড়াল। সবচেয়ে বিস্ময়কর বিষয়টি হচ্ছে, বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী আসলাম চৌধুরী বিএনপি নেত্রীকে অবহিত করেছেন। অবহিত হওয়ার পর বিএনপি নেত্রী থাকে সাবধানে থাকার জন্য পরামর্শও নাকি দিয়েছেন। এসব খবর দেশের সব শ্রেণীর মানুষকে উৎকণ্ঠায় ফেলেছে। এর পাশাপাশি বিএনপি পড়েছে আরেক দফা বেকায়দায়। এর থেকে উত্তরণের পথ কী হবে তা ভবিষ্যতই নির্ধারণ করবে বলে সংশ্লিষ্ট রাজনৈতিক বোদ্ধাদের অভিমত।

প্রকাশিত : ১৪ মে ২০১৬

১৪/০৫/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: