২২ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

বড়মাঠের সীমানা প্রাচীর নির্মাণ শেষ না হওয়ায় ক্ষোভ


নিজস্ব সংবাদদাতা, ঠাকুরগাঁও, ১৩ মে ॥ শহরের সরকারী বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের বড়মাঠের সীমানা প্রাচীর নির্মাণ কাজ এক বছরেও শেষ না হওয়ায় জনমনে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

ঠাকুরগাঁও শহরের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত এই বড়মাঠ সর্বস্থরের মানুষের অঘোষিত বিনোদন কেন্দ্র। ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত নানান বয়সের অসংখ্য নারী-পুরুষ এ মাঠে আসেন খেলাধুলা, ব্যয়াম, আড্ডাসহ মুক্ত হওয়া গ্রহণের আশায়। সম্প্রতি এ মাঠে অবৈধ দখলদারের দৌরাত্ম্য বৃদ্ধি পাওয়ায় এর ঐতিহ্য রক্ষার জন্য মাঠের চারদিকে সৌন্দর্য বর্ধনকারী সীমানা প্রাচীর নির্মাণের জন্য পৌরসভা কর্তৃপক্ষ ৮৪ লাখ টাকা বরাদ্দ অনুমোদন দেয়।

বাংলাদেশ মিউনিসিপাল ডেভেলপমেন্ট ফান্ড থেকে বরাদ্দকৃত অর্থে ৭৩৫ মিটার দীর্ঘ সীমানা প্রাচীর নির্মাণের কথা। শহরের বাজারপাড়ার মুরাদ হোসেন এই কাজের ঠিকাদার। ২০১৫ সালের ২৩ জুন থেকে কাজ শুরু হয়ে ২০১৬ সালের ২২ জুনের মধ্যে সমস্ত কাজ শেষ হওয়ার কথা। আনুষ্ঠানিকভাবে নির্মাণ কাজ করা হয়েছিল। নক্সা অনুযায়ী সীমানা প্রাচীরে সাড়ে ৮ ফুট পরপর আরসিসি পিলার ও বড় আকারের দুটি গেট থাকার কথা ছিল। কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ে কাজ শেষ না হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

মাঠের সৌন্দর্য যাতে ঢেকে না পড়ে সেজন্য সীমানা প্রাচীরটি মাটি থেকে দেড় ফুট ইটের গাথুনির ওপর সাড়ে ৩ ফুট গ্রিল নির্মাণের কথা। কিন্তু দেড় ফুট ইটের গাথুনি তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যেতে পারে বলে কাজ শুরুর পর কর্তৃপক্ষের টনক নড়ে।