মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৫ আশ্বিন ১৪২৪, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

খুলনা সিটি কর্পোরেশনের সীমানা দ্বিগুণ হচ্ছে

প্রকাশিত : ১৪ মে ২০১৬

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা অফিস ॥ খুলনা সিটি কর্পোরেশনের (কেসিসি) সীমানা সম্প্রসারণের লক্ষ্যে বটিয়াঘাটা, ডুমুরিয়া, দৌলতপুর ও ফুলতলা উপজেলার ২০টি মৌজার সম্পূর্ণ ও কোন কোন ক্ষেত্রে আংশিক অন্তর্ভুক্ত করার জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে প্রস্তাবিত এলাকার অধিবাসীদের কোন মতামত/আপত্তি থাকলে তা গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের ৩০ দিনের মধ্যে জেলা প্রশাসককে অবহিত করতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। বর্তমানে খুলনা মহানগরীর আয়তন ৪৫.৬৫ বর্গকিলোমিটার। জনসংখ্যা প্রায় ১৪ লাখ। আরও ২০টি মৌজা অন্তর্ভুক্ত হলে এর পরিধি বৃদ্ধি পেয়ে প্রায় ৮৮ বর্গকিলোমিটার হবে অর্থাৎ বর্তমানের চেয়ে আয়তন হবে দ্বিগুণ।

জানা যায়, খুলনা সিটি কর্পোরেশন এরিয়ার বাইরের সীমানায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, পল্লী বিদ্যুত সমিতি, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় অঞ্চলিক কেন্দ্রসহ বহু প্রতিষ্ঠান ও সংস্থা রয়েছে। অনেক আবাসিক এলাকাও গড়ে উঠেছে। রূপসা সেতু, সংযোগ সড়ক ও বাইপাস সড়ক নির্মিত হওয়ার পর শহর সংলগ্ন এসব এলাকার গুরুত্ব বৃদ্ধি পেয়েছে। সূত্রমতে, কেসিসির প্রস্তাবিত বর্ধিত সীমানার মৌজাগুলো হচ্ছেÑ বটিয়াঘাটা উপজেলার সাচিবুনিয়া মৌজার আংশিক এবং একই উপজেলার হরিণটানা, মাথাভাঙ্গা, ডুবি, খোলাবাড়িয়া, অলুতলা, ঠিকরাবাদ ও কৃষ্ণনগর মৌজার সম্পূর্ণ অংশ, ডুমুরিয়া উপজেলার চক মথুরাপুর মৌজার সম্পূর্ণ অংশ এবং চক আসানখালি ও বিল পাবলা মৌজার আংশিক, দৌলতপুর থানার আড়ংঘাটা, তেলিগাতী ও যোগীপোল মৌজা সম্পূর্ণ অংশ এবং একই থানার দেয়ানা মৌজার আংশিক, ফুলতলা উপজেলার মশিয়ালী মৌজার অংশিক, আটরা ও শ্রমগঞ্জ মৌজা সম্পূর্ণ এবং একই উপজেলার শিরোমণি ও গিলাতলা মৌজার ক্যান্টনমেন্ট এলাকা বাদে অবশিষ্ট সম্পূর্ণ এলাকা কেসিসির সম্প্রসারিত এলাকা হিসেবে অন্তর্ভুক্তির জন্য গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়।

প্রকাশিত : ১৪ মে ২০১৬

১৪/০৫/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: