২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ইসরায়েলের বিমান হামলায় হিজবুল্লাহর জ্যেষ্ঠ নেতা নিহত


ইসরায়েলের বিমান হামলায় হিজবুল্লাহর জ্যেষ্ঠ নেতা নিহত

অনলাইন ডেস্ক॥ ইসরায়েলের অভিযানে সশস্ত্র রাজনৈতিক সংগঠন হিজবুল্লাহর একজন জ্যেষ্ঠ নেতা নিহত হয়েছেন।

বিবিসি বলছে, লেবানন-ভিত্তিক শিয়া এই গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

হিজবুল্লাহ জানিয়েছে, দামেস্ক বিমানবন্দরের কাছে ইসরায়েলের বিমান হামলায় মুস্তাফা আমিনি বদরেদ্দিন নিহত হয়েছেন। তবে এই অভিযোগের বিষয়ে ইসরায়েল প্রকাশ্যে কোনো মন্তব্য করেনি।

২০০৫ সালে বদরেদ্দিনসহ আরো তিন হিজবুল্লাহ সদস্য বৈরুতে লেবাননের সাবেক প্রধানমন্ত্রী রফিক হারিরিকে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

বদরেদ্দিনের নিহত হওয়ার খবর ঘোষণা করে এক বিবৃতিতে হিজবুল্লাহ বলেছে, “তিনি ১৯৮২ সাল থেকে ইসলামি প্রতিরোধের অধিকাংশ অভিযানে অংশ নিয়েছেন।”

১৯৬১ সালে জন্মগ্রহণকারী বদরেদ্দিন হিজবুল্লাহর সামরিক শাখার একজন জ্যেষ্ঠ ব্যক্তিত্ব বলে ধারণা করা হয়।

হিজবুল্লাহর সামরিক শাখার প্রধান ইমাদ মুগনিয়েহর কাজিন ও শ্যালক ছিলেন বদরেদ্দিন। ২০০৮ সালে দামেস্কে এক গাড়িবোমা হামলায় মুগনিয়েহ নিহত হন।

বদরেদ্দিন হিজবুল্লাহর শুরা কাউন্সিলের সদস্য ছিলেন এবং তিনি গোষ্ঠীটির প্রধান হাসান নাসারাল্লাহর উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করতেন।

কানাডার নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (সিএসআইএস) জিজ্ঞাসাবাদে হিজবুল্লার একজন সদস্য বদরেদ্দিনকে ‘সন্ত্রাসবাদে তার শিক্ষক’ ইমাদ মুগনিয়েহর চেয়েও ‘বেশি বিপজ্জনক’ বলে বর্ণনা করেছেন।

মুগনিয়েহ ও বদরেদ্দিন ১৯৮৩ সালে বৈরুতে মার্কিন মেরিন সেনাদের ব্যারাকে বোমা হামলার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। ওই হামলায় ২৪১ জন নিহত হন। বদরেদ্দিন যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার তালিকায় ছিলেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: