২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

কান চলচ্চিত্র উৎসবের পর্দা উঠল


জাঁকজমক এক উদ্বোধনী দিয়ে ফ্রান্সে শুরু হলো এ বছরের কান চলচ্চিত্র উৎসব। ফরাসী উপকূলীয় শহর কানের সি রিসোর্টে বুধবার সন্ধ্যায় শুরু হয় কান উৎসবের ৬৯তম আসর। খবর ওয়েবসাইটের।

প্রথমেই লালগালিচায় হেঁটে অনুষ্ঠানে প্রবেশ করেন উৎসবের বিচারকম-লী এবং উদ্বোধনী সিনেমার কলাকুশলীরা। ৬৯তম আসরে উদ্বোধনী সিনেমা হিসেবে নির্বাচন করা হয়েছে কিংবদন্তি নির্মাতা উডি এ্যালেনের ‘ক্যাফে সোসাইটি’ সিনেমাটি।

এর আগেও দুবার এ্যালেনের সিনেমা কানে প্রদর্শিত হয়েছে আসরের উদ্বোধনী সিনেমা হিসেবে। ২০০২ সালে প্রদর্শিত হয় ‘হলিউড এন্ডিং’ এবং ২০১১ সালে প্রদর্শিত হয় ‘মিডনাইট ইন প্যারিস’। উৎসবের ‘প্রতিযোগিতাবিহীন’ বিভাগে ১৪টি সিনেমার মধ্যে এ্যালেনের সিনেমা নিয়েই আলোচনা চলছে বিস্তর। মূল প্রতিযোগিতায় কেন অংশ নিচ্ছেন না,? এমন প্রশ্নের জবাবে গুণী নির্মাতা এবং অভিনেতা উডি এ্যালেন জানান, শৈল্পিক প্রদর্শনীতে আমি প্রতিযোগিতায় বিশ্বাস করি না। পুরো ব্যাপারটিই ব্যক্তিগত।

অবশ্য এবারের কান উৎসব নিয়ে কিছু সমালোচনা উঠেছে উৎসবজুড়ে নারী অংশগ্রহণ কমে যাওয়ায়। ‘ম্যাড ম্যাক্স’ পরিচালক জর্জ মিলারের নেতৃত্বে নয় বিচারকের মধ্যে নারী রয়েছেন মাত্র চারজন। তারা হলেনÑ মার্কিন অভিনেত্রী কারস্টেন ডানস্ট, ইরানী প্রযোজক কাতায়ুন শাহাবি, ইতালীয় নির্মাতা-অভিনেত্রী ভ্যালেরিয়া গোলিনো এবং ফরাসী অভিনেত্রী ভেনেসা পারাদিস।

কান আসরের সেরার স্বীকৃতি ‘পাম দ্য অর’-এর জন্য এবার জমা পড়েছিল ১,৮৬৯টি সিনেমা।

যার মধ্যে থেকে বাছাই করা ২১টি সিনেমা রয়েছে আসরের সেরা হওয়ার দৌড়ে। ‘পাম দ্য অর’ পাওয়ার প্রতিযোগিতায় এবার এশিয়া মহাদেশ থেকে রয়েছে তিনটি সিনেমা। এগারো দিনের এই জমজমাট আসরের পর্দা নামবে ২২ মে।

বিশ্বজুড়ে বেড়েই চলেছে গর্ভপাত

বিশ্বে প্রতি চার জন গর্ভবতী নারীর অন্তত একজনের শেষ পর্যন্ত গর্ভপাত হচ্ছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক রিপোর্ট বলছে, বছরে ৫ কোটি ৬০ লাখ নারীর গর্ভপাত হচ্ছে যা আগের চেয়ে অনেক বেশি। গবেষকদের মতে গরিব দেশগুলোতে গত ১৫ বছরে অবস্থার কোন উন্নতি হয়নি। তবে গর্ভপাতের ঘটনা বেশি ঘটছে উন্নয়নশীল দেশগুলোতেই। আর এটি হচ্ছে কোথাও জনসংখ্যা বৃদ্ধির কারণে, আবার কোথাও হচ্ছে পরিবার ছোট রাখার ইচ্ছে থেকে। তারা বলেছেন, গর্ভপাত সব দেশেই হচ্ছে, সেটি বৈধ হোক আর না হোক। খবর বিবিসির।

বিজ্ঞানীদের মতে, গর্ভপাতবিরোধী আইন গর্ভপাত কমাতে পারছে না বরং এর কারণে অবৈধ বা অনিরাপদ গর্ভপাত দিকে যাচ্ছে অনেকে। বিজ্ঞানীরা বলছেন, ১৯৯০-৯৪ সাল পর্যন্ত সময়কালে গর্ভপাতের সংখ্যা ছিল বছরে ৫ কোটির মতো। ২০১০-১৪ পর্যন্ত সময়ে সেটি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ কোটি ৬০ লাখে।