২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৫ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

বিলুপ্ত ছিটমহলে ভারতীয় প্রতিনিধি দল


স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম ॥ ফুলবাড়ী উপজেলায় বিলুপ্ত ছিটমহলে ভারতীয় ট্রাভেল পাস নিয়েও ভারতে না যাওয়া ৬০ জন নারী-পুরুষ ও শিশুর মতামত জানতে ভারতীয় হাইকমিশনের একটি প্রতিনিধি দল দাসিয়ারছড়ায় মতবিনিময় করেন। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় অধুনালুপ্ত ছিটমহল দাসিয়ারছড়ার কালিরহাট কমিউনিটি সেন্টারে এ মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় ভারতীয় প্রতিনিধি দলে উপস্থিত ছিলেনÑ ভারতীয় জনগণনার অতিরিক্ত নিবন্ধক এস কে চক্রবর্তী, ভারতীয় সহকারী স্বরাষ্ট্র সচিব এমএস ইফশিতা শাহা পাল, কলকাতা সচিবালয়ের শাখাপ্রধান এমএস কাজারী বিশ্বাস, সহকারী হাইকমিশনার অভিজিৎ চট্টোপাধ্যায়, ভারতীয় হাইকমিশন ঢাকার প্রথম সচিব রমাকান্ত গুপ্ত, রাজশাহী হাইকমিশনের সহকারী এ্যাটাসে অভিজিৎ মিত্র। বাংলাদেশের পক্ষে উপস্থিত ছিলেনÑ ফুলবাড়ীর ইউএনও দেবেন্দ্র নাথ উরাঁও, সহকারী কমিশনার (ভূমি) নবী নেওয়াজ, পিপি এ্যাডভোকেট এসএম আব্রাহাম লিংকন, ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ এবিএম রেজাউল ইসলাম, বিলুপ্ত বাংলাদেশ-ভারত ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির নেতা মইনুল হক, গোলাম মোস্তফা, আলতাফ হোসেন প্রমুখ।

প্রাপ্ত সূত্রে জানা যায়, গত বছরের ৬ জুলাই থেকে ১৬ জুলাই জনগণনায় এ ছিটের বাসিন্দা ৭ হাজার ৬৯ জনের মধ্যে ভারতে যাওয়ার জন্য মতামত জরিপ ফরম পূরণ করেন ৩১৭ জন। এর মধ্যে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসকের বরাবরে ১১-১০-২০১৫ এবং ২৯-১০-২০১৫ তারিখে দাসিয়ারছড়ার ৬০ জন অধিবাসী জন্মভূমিতে থেকে যাওয়ার জন্য লিখিত আবেদন করেন। পরবর্তীতে ৩ দফায় ২৫৭ জন দাসিয়ারছড়ার অধিবাসী ট্রাভেল পাস নিয়ে ভারতে চলে গেলেও অবশিষ্ট ৬০ জন ভারতে না যাওয়ার কারণে ভারতীয় প্রতিনিধি দল তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

এ ব্যাপারে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার অভিজিৎ চট্টোপাধ্যায় জানান, যারা যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে আবেদন করেছেন তাদের মতামত নেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে বাদল, হাজিরন, হেলাল, কল্পনা ও তানজিনা নামের ৫ জন দাসিয়ারছড়ার অধিবাসী উপস্থিত না থাকায় তাদের সম্পর্কে ভারতীয় প্রতিনিধি দল কোন মতামত নিতে পারেনি। পরবর্তীতে দুই দেশের সরকার আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেবেন তাদের নাগরিকত্ব বিষয়টি।