২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

চলে গেলেন ‘ক্যারিবীয় ক্রিকেটের কণ্ঠস্বর’


চলে গেলেন ‘ক্যারিবীয় ক্রিকেটের কণ্ঠস্বর’

অনলাইন ডেস্ক॥ তরুণ বয়সে বার্বাডোজের দুটি ক্লাবের হয়ে খেললেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কখনোই পা রাখেননি টনি কোজিয়ার। কিন্তু ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে গিয়েছিল তাঁর নাম। অর্ধশতাব্দীর বেশি সময় ধরে সাংবাদিক ও ধারাভাষ্যকার হিসেবে কাজ করা কোজিয়ারকে ডাকা হতো ‘ক্যারিবীয় ক্রিকেটের কণ্ঠস্বর’। কিংবদন্তি এই ক্রিকেট লেখক গতকাল বুধবার মারা গেছেন ৭৫ বছর বয়সে।

কানাডার চার্লটন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতার শিক্ষা শেষে ১৯৫৮ সালে রিপোর্টার হিসেবে কাজ শুরু করেছিলেন কোজিয়ার। ১৯৬৫ সাল থেকে শুরু করেছিলেন টেস্ট ক্রিকেটের রেডিও ধারাভাষ্য। এর পর বিবিসি, স্কাই স্পোর্টস ও অস্ট্রেলিয়ার চ্যানেল নাইনের হয়েও ধারাভাষ্য দিয়েছিলেন কোজিয়ার। ১৯৭৮ সালে লিখেছিলেন ক্যারিবিয়ান ক্রিকেট নিয়ে ইতিহাসমূলক বই ‘দ্য ওয়েস্ট ইন্ডিজ : ৫০ ইয়ার্স অব টেস্ট ক্রিকেট’। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের ২২টি বার্ষিক প্রকাশনাও সম্পাদনা করেছিলেন এই কিংবদন্তি সাংবাদিক ও ধারাভাষ্যকার।

তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড বলেছে, ‘তিনি এটা নিশ্চিত করেছিলেন যে, পুরো পৃথিবীর ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেট সমর্থকরা যেন তাদের প্রিয় দল ও প্রিয় খেলোয়াড়দের সম্পর্কে সব ধরনের খবরাখবর পায়। তাঁর পুরো জীবনটাই নিবেদিত ছিল ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটের জন্য। আর এই অসামান্য অবদানের জন্য আমরা তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা জানাই। তিনি শুধু একজন অসাধারণ সাংবাদিকই নন, তিনি ছিলেন ক্যারিবীয় ক্রিকেটের শুভেচ্ছাদূত। জীবনে যেখানেই গেছেন, সেখানেই তিনি ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। পুরো পৃথিবীর মানুষকে তিনি পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন আমাদের ক্রিকেট, মানুষ ও সংস্কৃতির সঙ্গে। তাঁর কণ্ঠস্বর ছিল খুবই জোরালো। আর এটা ক্রিকেট বিশ্বে প্রতিধ্বনিত হতে থাকবে।’

ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসিও গভীর শোক প্রকাশ করেছে কোজিয়ারের মৃত্যুতে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: